মঙ্গলবার ২৩ অক্টোবর ২০১৮ ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

অমরপুর ইউনিয়নে জেলা তথ্য অফিসের দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা

ষ্টাফ রিপোর্টার : জেলা তথ্য অফিস, দিনাজপুর-এর আয়োজনে “শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম ( ৫ম পর্যায়)” শীর্ষক প্রকল্পের অধীন শিশু ও নারীর অধিকার, শিশুর যথাযথ বিকাশ, অটিজম ও শিশুর মানসিক স্বাস্থ্য, জন্ম নিবন্ধন, শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন কার্যক্রমসমূহ, নারীর সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিসমূহ, শিশুর পানিতে ডুবা প্রতিরোধ, পরিবেশ সুরক্ষা ও দুর্যোগকালীণ নারী ও শিশুর সচেতনতা, জেন্ডার সমতা, নিরাপদ মাতৃত্ব, শিশু ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ইত্যাদি বিষয়ক বার্তানির্ভর নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের অংশগ্রহণে দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

ওরিয়েন্টেশন কর্মশালার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের পর ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র তথ্য অফিসার জনাব মো: সোহেল মিয়া এর ওরিয়েন্টেশন কর্মশালার বিষয়ভিত্তিক স্বাগত বক্তব্যে প্রদান করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মো: গোলাম রব্বানী । অমরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব মো: হেলাল উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে ইউনিয়নের নির্ধারিত ৪০ জন অংশগ্রহণকারীর উপস্থিতিতে প্রধান অতিথি বাস্তবভিত্তিক উদাহরণের মাধ্যমে বর্তমান সরকারের দেশের বিভিন্ন দপ্তরের উন্নয়নের কথা বলেন। সরকারের সাড়ে আট বছরের অর্জিত সফলতা ও উন্নয়ন ভাবনা, ভিশন -২০২১, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা সম্পর্কে বিস্তারিত কথা বলেন।  সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ বিষয়ে তিনি বলেন, একটি সুন্দর সমাজ গড়ার জন্য একটি সুন্দর পরিবার গড়তে হবে। দেশের অর্ধেক জনগণ নারী সমাজ তাদেরকেও উন্নয়নের জন্য এগিয়ে আসতে হবে। আর সুন্দর পরিবার গঠনে মায়ের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। ধর্মের সঠিক জ্ঞান অর্জন করে সেই অনুযায়ী সন্তানকে শিক্ষা দিতে বলেন। তিনি বলেন, গুলশান হামলায় যারা জড়িত তাদের ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান ছিল না। তিনি মাদক, সন্ত্রাস এবং জঙ্গিবাদকে ‘না’ বলতে বলেন। এজন্য অভিভাবকগণকে ড্রাগ থেকে বাঁচাতে সন্তানকে ¯েœহ,মায়া দিয়ে যতœ নিতে ও সবসময় খোঁজ-খবর রাখতে বলেন। নারীর ক্ষমতায়ন, শিক্ষা, ডিজিটাল সেবাসহ সরকারের সফলতা ও ভবিষ্যত ভাবনার কথাও তার বক্তব্যে তুলে ধরেন। ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় তিনটি সেশনের প্রথম সেশনে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জনাব মো: ইসমাইল হোসেন নিরাপদ মাতৃত্ব, শিশু ও নারীর অধিকার, শিশুর যথাযথ বিকাশ, অটিজম ও শিশুর মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন। দ্বিতীয় সেশনে চিরিরবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) জনাব মো: শফিকুল ইসলাম শিশু ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ ইত্যাদি বিষয়ক বার্তানির্ভর বক্তব্য প্রদান করেন । ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য, সদস্যা, সাংবাদিক, শিক্ষক, শিক্ষিকা,ধর্মীয় ব্যক্তি, এনজিওকর্মী, সমাজের গণ্যমান ব্যক্তিবর্গ প্রমূখ ।