সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটাতে দিনাজপুরে“গার্লস অফ হেভেন”র ১০ হাজার সদস্যের আত্মপ্রকাশ

সাহেব, দিনাজপুর  ॥  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাকুরির পিছনে না ছুটে নিজেরাই উদ্যোক্তা হন এবং মেয়েদেরকে উদ্যোক্তা হয়ে নিজেকে স্বাবলম্বি হয়ে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ঘটাতে হবে এ উক্তিকে সামনে রেখে দিনাজপুরে “গার্লস অফ হেভেন” নামে একটি ফেসবুক গ্রুপ ২ মাস ২০ দিনে ১০ হাজার সদস্য করে তরুনীদের নিজে স্বাবলম্বি হওয়ার কার্যক্রম শুরু করেছে। ৭ সেপ্টেম্বর সোমবার এ কার্যক্রম কেক কেটে সেলিব্রেশন-এর মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষনা দেয়া হলো।

এ অনুষ্ঠানে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের এম আব্দুর রহিম মিলনায়তনে প্রধান অতিথি দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে মেয়েদের ভুমিকা অপরিহার্য। ঘরে বসে না থেকে নিজেদেরকে এখন থেকে ক্ষুদ্র শিল্পকে গড়ে তুলতে হবে। এই উদ্যোক্তারা যে পদক্ষেপ নিয়েছেন এই পদক্ষেপে প্রতিটি পরিবার অর্থনৈতিক ভাবে সাশ্রীত হবেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল। গ্রুপের এ্যডমিন ছিলেন সাদিয়া খান ও মডারেটর জারিন তাসনিম অংকিতা।

সেলিব্রেশন অনুষ্ঠানের আয়োজনে ছিলেন নাসিবা শাহারিয়ার, সামা খান, রত্না খোকন, আলবানি ইসরাইল বৃষ্টি, মুসরাত জাহান, রুবাইয়াত পৃথ্বী, সাইমা খান লিজা, ইনতু, পিংকি, তানিয়াসহ গ্রুপের সদস্যরা।

গ্রুপের এ্যডমিন সাদিয়া খান অনুষ্ঠানে জানান, এই ১০ হাজার তরুনী জীবনমান উন্নয়নে ইতিমধ্যেই পার্লার, কাপড়, কাঠের আসবাবপত্র, এ্যাম্বুডাইরি, খাবার, মেয়েদি, জুয়েলারি ও কুঠির শিল্পসহ যাবতীয় কার্যক্রম শুরু করেছে এবং বাজারজাত করছে।  ফলে পিতা-মাতা বা অভিভাবকদের সংসার খরচে সাশ্রয় হচ্ছে। অপরদিকে ক্ষুদ্র শিল্প’র বিকাশ ঘটছে। এই গ্রুপ অচিরেই দিনাজপুরে অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটাতে বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিবে। তিনি বলেন, ১০ হাজার সদস্য সকলেই দিনাজপুর শহরেই। করোনার এই মহামারিতে মানুষ যখন কর্ম হারাতে বসেছে। বাসায় থেকে এই মেয়েরা অনলাইনে প্রয়োজনীয় বিভিণ্ন পণ্য হাতের নাগালে এনে দিয়ে মানুষের জীবন  যাত্রার মান সহজ করে দিয়েছে। সেই সাথে নিজেদের আয়ের পথ খুজে নিয়েছে। এরা সবাই নিজেদের উদ্যোগে বাসায় বসেই অনলাইনে তাদের কেনা অথবা উৎপাদিত পণ্য বিক্রি করছে। এ ছাড়া এই গ্রুপটি নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে কাজ ও নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করছে।

উল্লেখ, করোনা মহামারির কারনে অনুষ্ঠান সীমিত আকারে করা হয়।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email