সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আটোয়ারীতে বিয়ের তিন মাসের মাথায় যৌতুকের জন্য গৃহবধুকে নির্যাতন

রীনা চৌধূরী, আটোয়ারী (পঞ্চগড়) থেকে ॥ পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে বিয়ের তিন মাসের মাথায় যৌতুকের জন্য গৃহবধুকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগে জানাগেছে, গত মঙ্গলবার বিকেলে যৌতুকের জন্য স্বামী ও পরিবার কতৃক নির্যাতন করা হয়। গৃহবধুর অবস্থার বেগতিক দেখে পরে স্থানীয় লোকজন আটোয়ারী হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। কর্তব্যরক চিকিৎসক রোগীর অবস্থা বেগতিক দেখে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন। বর্তমানে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে মৃত্যু’র সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে গৃহবধু পারভিনের।

ঘটনার বিবরনে জানাগেছে, গত ০৮ ই মার্চ মির্জাপুর ইউনিয়নের ছোট মালিগাঁও গ্রামের ইমাজ উদ্দীন এর পুত্র এনতাজুল হক (২৫) এর সাথে কালীকাপুর গ্রামের মুকিম উদ্দীনের মেয়ে মোর্শেদা পারভীন (২০) এর সাথে প্রায় চার লক্ষ টাকা যৌতুক নির্ধারণ করে ইসলামী সরিয়ত অনুযায়ী ধর্মীয় ভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের পরে মেয়ের বাবা প্রায় ৩ লক্ষ টাকা এনতাজুলের হাতে তুলে দেয়। আর বাকী এক লক্ষ টাকার জন্য প্রায় দিনেই নির্যাতন করত এনতাজুল। তারই ধারাবাহিকতায় নির্যাতনের শেষ প্রান্তে চলে আসে এনতাজুল। ঘটনার সত্যতা জানতে পারভীনের স্বামীর সাথে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলে সে এ বিষয়ে কোন রকম কথা বলতে রাজি হননি এনতাজুল। এমন ঘটনায় মেয়ে সহ অভিভাবকরা পাসন্ড স্বামী এনতাজুল সহ ঘটনার সাথে জরিতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান। এ ঘটনায় পারভিনের বাবা মকিম উদ্দীন অসুস্থ্য পারভীনের চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকায় এখন পর্যন্ত থানায় মামলা করতে পারেনি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে মকিম উদ্দীন জানান।