বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

আনুষ্ঠানিকভাবে সুচির সম্মাননা প্রত্যাহার করল অক্সফোর্ড

Inter

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিকে দেয়া সম্মান ‘ফ্রিডম অব দ্যা সিটি অব অক্সফোর্ড’ খেতাব প্রত্যাহার করে নিয়েছে ব্রিটেনের অক্সফোর্ড নগর কাউন্সিল।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) ভোটাভুটির পর আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মাননাটি কেড়ে নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে দুই ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান ও বিবিসি। গত অক্টোবরেই তার এই খেতাব প্রত্যাহারের পক্ষে ভোটাভুটির প্রস্তাব দিয়েছিল কাউন্সিল।

এ বিষয়ে নগর কর্তৃপক্ষের দাবি, মিয়ানমার রোহিঙ্গা মুসলিমদের প্রতি যে আচরণ করছে, তাতে সুচি আর ‘ফ্রিডম অব দ্যা সিটি অব অক্সফোর্ড’ নামের ওই পুরস্কারের যোগ্য নন।

কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, বিবিধ এবং মানবিকতার শহর হিসেবে অক্সফোর্ডের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য রয়েছে। সহিংসতায় যারা অন্ধ তাদের সম্মানিত করায় আমাদের সুনাম কলঙ্কিত হয়েছে। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানবিক অধিকার এবং ন্যায়বিচার আহ্বানে আমরাও আজ আমাদের মতামত যোগ করলাম।

এদিকে, সেন্ট হাগস কলেজ যেখানে সুচি পড়াশোনা করেছিলেন, সেখান থেকে তার ছবি সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারে সামরিক বাহিনী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে লাখ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান, বৌদ্ধ এবং হিন্দু ঘরবাড়ি ছেড়ে রাখাইন রাজ্যের ভেতরেই সাময়িক আশ্রয়ে রয়েছে। ছয় লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে বাংলাদেশে। এরপরই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় অং সান সুচির বিরুদ্ধে সরব হয়। তার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাকে দেয়া সম্মাননা বাতিল করার দাবি ওঠে।

দেশটিতে সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে থাকার সময়ে বছরের পর বছর সুচি গৃহবন্দী ছিলেন। ওই সময় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য সোচ্চার থাকতে দেখা গেছে তাকে। কিন্তু দেশটিতে রোহিঙ্গা মুসলমানের ওপর যেভাবে নির্যাতন হয়েছে, তাতে করে সুচির ভূমিকায় হতবাক হয়েছেন বিশ্বের অনেক নেতারা।