সোমবার ৩০ মার্চ ২০২০ ১৬ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ইসলাম কখনও জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এমপি বলেছেন, ‘ইসলাম হলো শান্তির ধর্ম, ইসলাম কখনও জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না’ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে বাংলাদেশ থেকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদক নির্মূলে জিরোটলারেন্স ঘোষণা করেছেন।

রবিবার কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ইসলাহুল মুসলিমিন পরিষদ বাংলাদেশ আয়োজিত ইছাপশর-বেলংকা গ্রামে জামিয়াতুল ইসলাহ আল মাদানিয়া ময়দানে তিনদিনব্যাপী ইসলাহী ইজতেমার আখেরী মোনাজাতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথাগুলো বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলেয়ে বাংলাদেশ সামনে অগ্রসর হচ্ছে। সরকার কওমি মাদরাসাকে স্বীকৃতি দিয়েছে। আলেম উলামাদের উন্নয়নের জন্য আরো কিছু করার প্রয়োজন হলে আপনারা দাবি জানাবেন। সরকার আপনাদের পাশে আছে। দেশকে এগিয়ে নিতে আপনাদেরও সার্বিক সহযোগিতা করতে হবে।

তিনি আলেমদের আহ্বান করে বলেন, মসজিদে জুমার খুৎবা এবং ধর্মীয় সভা সমাবেশে ইসলামের আহ্বান সঠিকভাবে পৌঁছাতে হবে। ইসলাম যা নিষেধ করেছে এবং যা আদেশ করেছে এ ব্যাপারে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

আওলাদে রাসূল, সদরুল মুদাররেসিন, উস্তাদুল হাদিস, মাদরাসায়ে ইসলামিয়া আরাবিয়া জামে মসজিদ আমরুহার (ভারত) ও শায়খুল ইসলাম হোসাইন আহমদ মাদানীর (রহ.) দৌহিত্র হযরত মাওলানা মুফতি আফ্ফান মনসুরপুরীর জুময়ার বয়ান ও ইমামতির মধ্য দিয়ে গত শুক্রবার উক্ত তিনদিনব্যাপী ইসলাহী ইজতেমা শুরু হয়ে রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়। আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন সায়্যিদ আস’আদ মাদানীর (রহ.) অন্যতম খলিফা, আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান ও কিশোরগঞ্জ ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ্ মাঠের গ্র্যান্ড ইমাম পীরে কামেল আল্লামা ফরিদ উদ্দিন মাসঊদ (দা.বা.)। উক্ত ইসলাহী ইজতেমায় বয়ান পেশ করেন, আওলাদে রাসূল ফিদায়ে মিল্লাত হযরত সায়্যিদ আস’আদ মাদানীর (রহ.) কনিষ্ঠ সাহেবজাদা মুফতি মওদুদ মাদানী (দেওবন্দ) ভারত, হযরত মাওলানা ইমাম ক্বাসিম রশিদ আহম্মদ, চেয়ারম্যান আল খায়ের ফাউন্ডেশন ও ইকরা টিভি, বংশধর ক্বাসিম নানতভী (রহ.) ইংল্যান্ড। এছাড়াও ইসলাহী ইজতেমার আখেরী মোনাজাতে ময়মনসিংহ-৯ (নান্দাইল) আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদিন খান তুহিন, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট জিল্লুর রহমান, জেলা প্রশাসক সারোয়ার মুর্শেদ চৌধুরী, পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ (বিপিএম বার), উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জহিরুল ইসলাম ভূঞা শাহীন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তারেক মাহমুদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. আজিজুল হক ভূঞা মোতাহার, সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন লাকী, তাড়াইল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুজিবুর রহমান, ওসি তদন্ত মিজানুর রহমান, আয়োজক কমিটির সন্বয়ক মাওলানা সাঈদ নিজামীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে লক্ষাধিক মুসুল্লী অংশগ্রহণ করেন।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email