বৃহস্পতিবার ১৫ নভেম্বর ২০১৮ ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ইসলাম পবিত্র ধর্ম, শান্তির ধর্ম-প্রধানমন্ত্রী

ধর্ম নিয়ে কাউকে রাজনীতি না করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলাম পবিত্র ধর্ম, শান্তির ধর্ম। কিন্তু কিছু মানুষের জঙ্গি কর্মকাণ্ডে ইসলাম ধর্ম প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে। ধর্মকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অধিকার কারো নেই। এই ধর্ম নিয়ে কেউ যেন রাজনীতি না করে।

বুধবার সকালে রাজধানীর আশকোনা হজ ক্যাম্পে হজ কার্যক্রম-২০১৮ এর উদ্বোধন ও হজযাত্রীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, কিছু কিছু মানুষ আমাদের ধর্মকে ব্যবহার করে জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড করে। অথচ ইসলাম ধর্ম সবচেয়ে শান্তির ধর্ম। যেখানে বলা হয়েছে প্রত্যক মানুষ নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে। এখানে হানাহানি ও সংঘর্ষের কোনো স্থান নেই। ইসলাম জগৎবাসীকে শিক্ষা দিয়েছে ন্যায় ও সুবিচারের।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের লক্ষ্য আমরা দেশকে এগিয়ে নেওয়া। হজ ব্যবস্থাপনায় ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার হচ্ছে। সমগ্র দেশে হজের জিজিটাল কেন্দ্র করে দিয়েছি। হজে যারা যাবেন তাদের নিবন্ধন এখন অনলাইনে করে দিচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আগে আমাদের নিজস্ব কোনো বিমান ছিল না। ইতোমধ্যে আমরা ৬টি বিমান ক্রয় করেছি আরও দুটি চলে আসবে। এভাবেই হজকে সহজ করতে ও হাজিদের সব রকম সুবিধা দিতে ব্যবস্থা করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা হজে গিয়ে দেশবাসীর জন্য দোয়া করবেন। দেশ যেন উন্নত ও সমৃদ্ধশালী হয় এবং আমরা দেশ ও দেশের মানুষের জন্য যে কাজ করেছি, যে কাজ করার উদ্যোগ নিয়েছি তা যেন ভালোভাবে শেষ হয় সে জন্য দোয়া করবেন।

হজ যাত্রীদের থাকার জন্য সুব্যবস্থা করা হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরবে হজ টার্মিনালের পাশে হজ যাত্রীদের থাকার জন্য ৪০ কোটি টাকা ভাড়া দিয়ে আবাসন ব্যবস্থা করা হয়েছে। আগে সেখানে হজ যাত্রীদের রাস্তাঘাটে পরে থাকতে হতো। হাজিদের যেন কোনো সমস্যা না হয় সে জন্য সেখানে ভলান্টিয়ার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। সেখানে দোভাষী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। হজ যাত্রীদের কীভাবে কী করতে হবে সে ব্যাপারে একটা নির্দেশিকা করা হয়েছে। এখন আমাদের হজ ব্যবস্থাপনা সর্বক্ষেত্রে প্রশংসা অর্জন করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জেলায় জেলায় আধুনিক মসজিদ নির্মাণে ৮০ ভাগ জায়গা ইতোমধ্যে চিহ্নিত করেছি। ৮০০ হাজার কোটি টাকা একনেকে পাস হয়েছে।

ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত আবদুল্লাহ এ এইচ এম আল মুতাইরী, হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) এর সভাপতি আবদুস সোবহান ভূঁইয়া ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন তছলিম প্রমুখ।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার হজ যাত্রীদের নিয়ে প্রথম ফ্লাইট মক্কার উদ্দেশে যাত্রা করবে। চলতি বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬ হাজার ৭৯৮ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজারসহ মোট ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৯৮ জন পবিত্র হজ পালন করবেন। আগামী ১৪ জুলাই প্রথম ফ্লাইট শুরু হবে। চলবে আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত। ফিরতি হজ ফ্লাইট শুরু হবে ২৭ আগস্ট ও শেষ ফিরতি ফ্লাইট ২৫ সেপ্টেম্বর।