শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

এদেশে সকল ধর্মের মানুষ ভাই-ভাই হিসেবে বসবাস করছে-এমপি গোপাল

ফজিবর রহমান বাবু ॥ দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ঐতিহ্যের দেশ বাংলাদেশে ধর্ম যার যার কিন্তু উৎসব সবার। আমাদের দেশে হিন্দু বৌদ্ধ মুসলমান খ্রিষ্টান কোনো ভেদাভেদ নেই।

তিনি বলেন, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট ইতিমধ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশের সংখ্যালঘুদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, উপাসনালয় সংস্কার কল্পে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। আমাদের একটি বিষয়ে সকল শ্মশান কমিটি, মন্দির কমিটিকে খেয়াল রাখতে হবে যে একটি ভূমিদস্যু তারা বিভিন্নভাবে অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। সরকারের পাশাপাশি শক্ত অবস্থান গ্রহণ করতে হবে। কারণ তাদের সম্পদ রক্ষার্থে সর্বাত্মক চেষ্টা অবশ্যই কমিটির পক্ষ থেকে থাকতে হবে। আমরা সকল ধর্মের মানুষ মুসলমান হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান একসাথে ভাই-ভাই হিসেবে বসবাস করছি। এটি সমগ্র বাংলাদেশের চিত্র। ‘এখানে কখনো কোনো ভেদাভেদ ছিল না, ভবিষ্যতেও থাকবে না, কেউ চেষ্টা করলেও সেটা নষ্ট করতে পারবে না।’

৪ আগষ্ট ২০২০ মঙ্গলবার বাংলাদেশ হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের উন্নয়ন কল্পে দিনাজপুর রাজবাটী গর্ভেশ্বরী শ্মশান ঘাট ও কালী মন্দির পরিদর্শনকালে দিনাজপুর -১ আসনের সংসদ সদস্য ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন শীল গোপাল এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার, মাই টিভির দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি মুকুল চট্টপাধ্যয়, রাজবাটী গর্ভেশ্বরী শ্মশান ঘাট এর সাধারন সম্পাদক মিহীর ঘোষসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email