শনিবার ১৮ অগাস্ট ২০১৮ ৩রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

এশিয়া কাপে থাইল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালের পথে হাটছে বাংলাদেশ

নারী এশিয়া কাপের চতুর্থ ম্যাচে থাইল্যান্ডকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। মাত্র ৬০ রানে অলআউট করে জয় তুলে নিয়েছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

এই জয়ের ফলে নারী এশিয়া কাপের ফাইনালে যাওয়ার পথে আরো একধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। সালমারা শেষ ম্যাচে যদি মালয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় ব্যবধানে জয় পায় এবং শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান প্রতিপক্ষ ভারতের কাছে হার মানে তাহলে বাংলাদেশের সুযোগ থাকবে রবিবার ফাইনাল খেলার।

বৃহস্পতিবার (৭ জুন) সকালে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের কিনরারা একাডেমি ওভালে টস জিতে থাইল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করতে আমন্ত্রণ জানান বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন। বাংলাদেশের মেয়েদের বোলিং তোপের মুখে পড়ে ৬০ রানের বেশি সংগ্রহ করতে পারেনি শ্যামদেশের মেয়েরা। ৬১ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি বাংলাদেশকে। মাত্র ১১.১ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের বোলিং তোপে সুবিধা করতে পারেনি থাই মেয়েরা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। ৩ রানে প্রথম, ৯ রানে দ্বিতীয়, ২১ রানে তৃতীয়, ২৬ রানে চতুর্থ, ৩১ রানে পঞ্চম, ৩৬ রানে ষষ্ঠ, ৩৯ রানে সপ্তম ও ইনিংসের শেষ বলে দলীয় ৬০ রানে অষ্টম আউকেট হারায়। তাতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৬০ রানের বেশি করতে পারেনি থাইল্যান্ডের মেয়েরা।

বল হাতে বাংলাদেশের সালমা খাতুন ও নাহিদা আক্তার ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। আর ১টি করে উইকেট নিয়েছেন জাহানারা আলম, ফাহিমা খাতুন, খাদিজাতুল কুবরা ও রুমানা আহমেদ।

৬১ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৮ রানেই প্রথম উইকেট হারায়। ফিরে যান শামীমা সুলতানা। ১৩ বল খেলে ১ চারে ৮ রান করে যান। এরপর জুটি বাঁধেন নিগার সুলতানা ও আয়শা রহমান। তারা দুজন অবিচ্ছিন্ন থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। দ্বিতীয় উইকেটে তারা দুজন ৫৪ রান তোলেন। নিগার ২৮ বল খেলে ৩ চারে ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন। আর আয়শা রহমান ২৮ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন।

বল হাতে ৪ ওভারে মাত্র ৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন।

শনিবার লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক মালয়েশিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
থাইল্যান্ড : ৬০/৮ (২০ ওভারে)
বাংলাদেশ : ৬২/১ (১১.১ ওভারে)
ফল : বাংলাদেশ ৯ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা : সালমা খাতুন, বাংলাদেশ (৪ ওভারে ৬ রান দিয়ে ২ উইকেট)।