রবিবার ২৬ মে ২০১৯ ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ঐতিহাসিক অগ্নিঝরা মার্চ

শুরু হলো এবারের ঐতিহাসিক অগ্নিঝরা মার্চ মাস।  স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের আন্দোলনে একাত্তরের মার্চ মাস আমাদের শক্তির উৎস।

১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষার জন্য যে আগুন জ্বলে উঠছেলি- সে আগুন যেন ছড়িয়ে পরে বাংলার সর্বত্র। এর পরে যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬২ এর শিক্ষা আন্দোলন, ৬৬ এর ছয়দফা এবং ঊনসত্তরের গণঅভ্যুথানের সিঁড়ি বেয়ে একাত্তরের মার্চ বাঙ্গালীর জীবনে নিয়ে আসে নতুন বারতা।

৭ই মার্চ রেসকোর্স ময়দানে জনসভায় জাতির জনকের কন্ঠে ঘোষিত হয়েছিল বাঙ্গালী মুক্তি সনদের অমর কাব্য ,
”এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম” । জয় বাংলা!!!

২৫ মার্চের কালরাতে পাকিস্তানিরা বাঙ্গালীর কন্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দেয়ার লক্ষ্যে অপারশেন সার্চলাইট নামে বাঙ্গালি নিধনে নামে। ঢাকার রাস্তায় বেরিয়ে সন্যরা নির্বিচিারে হাজার হাজার লোককে হত্যা করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সহ বিভিন্নি শিক্ষা প্রতষ্ঠিানে হামলা চালিয়ে ছাত্র-শিক্ষককে হত্যা করে। এর পরের ঘটনাপ্রবাহ প্রতিরোধের ইতিহাস। বঙ্গবন্ধুর আহবানে ঘরে ঘরে র্দূগ গড়ে তোলা হয়। আবাল বৃদ্ধবনিতা যোগ দেন মহান মুক্তিযুদ্ধে। র্দীঘ নয়মাস জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র যুদ্ধের পর ১৬ ডিসেম্বের বিজয় অর্জনের মধ্যদিয়ে জাতি লাভ করে স্বাধীনতা।

মহান স্বাধীনতা অমর স্মৃতি বিজড়িত এই মাস মার্চ এবার এসেছে ভিন্ন বার্তা নিয়ে। এবারের মার্চ মাসে স্বাধীনতাপ্রিয় মানুষ দেশে শান্তির প্রত্যয়ে নতুন করে অংঙ্গীকার করবে- এ প্রত্যাশা সকলের।