সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলেও বীরগঞ্জে জনসচেতনতা বাড়ছে না

বিকাশ ঘোষ,বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধি ॥ সারাদেশসহ দিনাজপুরে করোনাভাইরাসের ভয়াবহ আকার ধারণ করলেও বীরগঞ্জ উপজেলার জনসাধারণ মানুষের মাঝে সচেতনতা বাড়ছে না। মাস্ক পরার উপর উপজেলা প্রশাসনের অভিযান পরিচালনা ও বীরগঞ্জ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক বিষয়ক ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা করা হলেও সচেতনতা বৃদ্ধিতে তেমন প্রভাব পরছে না। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে করোনা সম্পর্কে সাধারণ মানুষের ভীতি আর নেই। বিশেষ করে জনসমাগম বেশি হয়,এমন অফিস আদালতে মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সেখানে সামাজিক দূরত্ব তো দূরের কথা কারো মুখেই মাস্ক দেখা যায় না। গত বছর মার্চ মাসে দেশে ব্যাপক হারে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর সাধারণ মানুষের মাঝে করোনা সম্পর্কে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। সরকারের প্রচার-প্রচারণা এবং জনসচেতনতা বাড়তে থাকায় সাধারণ মানুষ ঘরমুখো হয়ে পড়ে। বিনা প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে যায়নি। কিন্তু ঠিক এক বছর পর এই চিত্র সম্পূর্ণ ভিন্ন। ঠিক এক বছর আগে সাধারণ মানুষের চলাফেরা রোধ করতে উপজেলা প্রশাসন ছিলো কঠোর। বর্তমানে তা অনেক শিথিল হয়ে গেছে। সে সময় সন্ধ্যার পরপরই মার্কেট বন্ধ করা হলেও এখন রাত ১০ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত মার্কেট চলছে। পৌরশহরের বিজয় চত্বর এলাকায় রাত ১২ পর্যন্ত চলছে দোকানপাট। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সাধারণ মানুষ যাতে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে সে ব্যাপারে সরকার কঠোর নির্দেশনা প্রদান করেছে। কিন্তু বীরগঞ্জের সাধারণ মানুষের মধ্যে করোনা নিয়ে উদাসিতাই ফুটে উঠেছে। মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক হলেও উপজেলায় প্রায় ৭০ ভাগ মানুষ তা মানছেন না। নো মাস্ক নো সার্ভিস এবং নো সেল কার্যক্রম বাস্তবায়ন হচ্ছে না। পৌরসভা ও উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ও বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামে ঘুরে দেখা যায়,অনেক কর্মকর্তা -কর্মচারীসহ সর্ব সাধারণ মাস্ক ছাড়াই চলাফেরা এবং দায়িত্ব পালন করছে। রাস্তাঘাট, হাট-বাজার,বিপণী বিতানগুলোতে নেই মাস্ক ব্যবহারে বাধ্যবাধকতা বা নেই কোথাও কোনো জনসচেতনতামূলক লিফলেট। বেশিরভাগ মানুষই মাস্ক ব্যবহার না করে চলাচল করছেন। দোকানপাটে ক্রেতাদের ভিড়ও প্রচণ্ড। এছাড়া ক্রেতা-বিক্রেতাদের বেশির ভাগই মাস্ক ছাড়া বেচাকেনা করছেন। হোটেল -রেস্টুরেন্টগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি যেন উপেক্ষিত, হোটেল মালিকদের ও মাস্ক পরিধান করতে দেখা যাচ্ছে না এমনকি তাদের ভোক্তাদের মাস্ক ব্যবহারে কোনো উপদেশও দিতে দেখা যাচ্ছে না।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email