শনিবার ২৫ মে ২০১৯ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কাউকে পিছনে ফেলে নয়, সকলকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে-এমপি গোপাল

ফজিবর রহমান বাবু ॥- কাউকে পিছনে ফেলে নয়, বরং সকলকে সাথে নিয়ে এগিয়ে গেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ উন্নত বাংলাদেশ গড়ার উদ্দেশ্য সফল হবে এ কথা উল্লেখ করে জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, বাংলাদেশের একটি জনগোষ্ঠী এখনও মুল স্রোতধারার সাথে সম্পৃক্ত হতে পারেনি। সেই জনগোষ্ঠীকে স্রোতধারার ধারার সাথে সম্পৃক্ত করার জন্য তাদের এগিয়ে নিয়ে আসতে হবে। তাদের আরো বেশি শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে, যেন তাদের সাথে মুল স্রোতধারার সাথে কোন বিভেদ না থাকে।

৫ মে রোববার সকাল ১০ টায় দিনাজপুর শহরের মিশন রোডস্থ কুঠিবাড়ী বেপ্টিস্ট মিশন কেরী মেমোরিয়াল হাই স্কুলের আয়োজনে আন্তঃ শ্রেণি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনা পর্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বক্তব্য শেষে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে আন্তঃ শ্রেণি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন করেন এমপি গোপাল। যার মুলসুর হলো:‘এসো আমরা শপথ করি, বিজ্ঞানী হয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ি’।

এমপি গোপাল আরো বলেন, মানুষের আগে ধর্ম সৃষ্টি হয়নি। মানুষ সৃষ্টির পরে ধর্ম সৃষ্টি হয়েছে। মানুষকে সুনির্দিষ্ট পথ পরিদর্শনের জন্য, মানুষকে সভ্য করার জন্য, মানুষকে সত্য-মিথ্যা চেনার জন্য এবং মানুষের মধ্যে মনুষ্যত্বের বিকাশ সংগঠিত করার জন্যই ধর্ম প্রবর্তিত হয়েছে। এক কথায় ধর্ম, শিক্ষা, বিজ্ঞান সব কিছু মানুষকে সমৃদ্ধ করার জন্যই। অনেকের ধারণা বিনা হিসাবে সরাসরি বেহেস্তে বা স্বর্গে যাওয়া যায়। এসব ধর্মান্ধতা থেকে আমাদের বেড়িয়ে আসতে হবে। পৃথিবী এগিয়ে যাচ্ছে। রাতারাতি কাউকে চাঁদে দেখা গেল এটি আর কেউ বিশ্বাস করে না। এখন চাঁদ জয় করার বিষয়। সুরা বা মন্ত্র পড়ে চাঁদে যাওয়া যায় না। বরং চাঁদে পৌছাতে গেলে বিজ্ঞানের প্রয়োজন। বিজ্ঞান কে বাদ দিয়ে জীবন সুন্দর হতে পারে না। সৃষ্টিকর্তাকে কখনই অস্বীকার করা যাবে না বরং সৃষ্টিকর্তা আমাদের মধ্যে যে মেধা দিয়েছে সেই মেধাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বের উন্নয়ন করতে হবে, মানব সভ্যতাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে এবং মানবতাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

এর আগে অনুষ্ঠান স্থলে এমপি গোপাল উপস্থিত হলে শিক্ষার্থীরা নেচে-গেয়ে তাঁকে স্বাগত জানায়। পরে স্কুলের শিক্ষক শরীফউদ্দিন এর সার্বজনীন প্রার্থনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। এরপর শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীদের বরণ গানের মাধ্যমে অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। তারপর শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ব্রাদার বেনেডিক্ট, স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক রেভা: জেমস এন্ড থান্দার।

স্কুলের সহকারী শিক্ষক হেনরী বুলবুল শিকদার এর সঞ্চালনায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ৮ম শ্রেণির শিক্ষার্থী রাইসা খানম স্নিগ্ধা। এরপর স্কুলের পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি এমপি গোপালকে ক্রেস্ট প্রদান করেন প্রধান শিক্ষক।

অনুষ্ঠান শেষে আন্তঃ শ্রেণি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় স্কুলের শিক্ষার্থীদের তৈরী ৫৪টি উদ্ভাবনী প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন প্রধান অতিথি মনোরঞ্জন শীল গোপাল। এসময় স্কুলের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।