সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

কাহারোলে আমন ধানের বাম্পার ফলন, কৃষকেরা লাভের মুখ দেখছেন

মোহাম্মদ আরমান আলী, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদদাতা ঃ দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলা শস্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত চলতি আমন মৌসুমে উপজেলায় আমন ধানের বাম্পার ফলন ও দাম ভাল পাওয়ায় কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। মৌসুমের শুরুতে প্রতিমন আমন মোটা জাতের ধান বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৯ শত থেকে ৯২০ টাকায়। শনিবার উপজেলার সর্ববৃহৎ কাহারোল হাটে ধান বিক্রি করতে আসা কয়েক জন কৃষকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ওই দামে ধান বিক্রি করে তারা লাভের মুখ দেখছেন। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে চলতি মৌসুমে উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে ১৩ হাজার ৭৫০ হেক্টর জমিতে আমন ধানের আবাদ হয়েছে। উপজেলা রামচন্দ্রপুর, মুকুন্দপুর, তাড়গাঁও ইউনিয়নের বিভিন্ন মাঠে গিয়ে দেখা গেছে কৃষকেরা মাঠে পাকা ধান কাটা ও মারাসহ সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন। মুকুন্দপুর গ্রামের কৃষক আফজাল হোসেন বলেন গত কয়েক বছর ধরে ধানে শুধু লোকসান গুনতে হয়েছে। তিনি বলেন, ১ মন ধান বিক্রি করে পাওয়া যাচ্ছে ৯০০ থেকে ৯২০ টাকা। গত কয়েক বছর আগে সেই ধান বিক্রি হয়েছে ৪৫০ থেকে ৪৭৫ টাকায় ১ মন ধান। অপরদিকে নয়াবাদ গ্রামের সুশীল চন্দ্র রায় (৫৫) বলেন, এবার ৫০ শতক জমিতে আমন ধান চাষ করে খরচ হয়েছে মোট ৮ হাজার টাকা ধান পেয়েছেন ৩০ মন। তিনি প্রতিমন ধান ৯০০ টাকায় বিক্রি করে মোট ২৭ হাজার টাকা দাম পেয়েছি। আর ধানের খড় বিক্রি করে পেয়েছে ৪ হাজার টাকা খরচ বাবদ দিয়ে তার ১৭ হাজার টাকা লাভ হয়েছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শামীম বলেন, এবার মোটামুটি উপজেলায় আমন ধানের ফলন ভাল হয়েছে। বাজারে ধানের দাম ও ভাল পাওয়ায় কৃষকেরা খুশি।

%d bloggers like this: