সোমবার ২২ অক্টোবর ২০১৮ ৭ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

খেলাধুলার বিকাশে যা প্রয়োজন সব করব: প্রধানমন্ত্রী

খেলাধুলার বিকাশে যা যা প্রয়োজন সব কিছু করবেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণভবনে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

গত সেপ্টেম্বরে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বে ভিয়েতনামকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ।

অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবল দলের মেয়েদের প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, “খুব সাহসী ভূমিকা রেখেছে সবাই। খেলার পারফরম্যান্সও খুব ভালো। আমি চাই খেলাধুলা, সংস্কৃতি চর্চা সবদিক থেকেই আমাদের দেশের ছেলে-মেয়েরা আরো উন্নত হোক।”

এসময় খেলোয়াড়দের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “তোমাদের সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে অন্যরাও খেলাধুলায় এগিয়ে আসবে।”

সম্প্রতি পাকিস্তানকে বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল দল ১৭ গোলে হারানোর কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় বিজয়ের হাসি দিয়ে তিনি বলেন, “এটা আরেক মুক্তিযুদ্ধ বিজয়ের মতই!”

লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করে শেখ হাসিনা বলেন, “খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চা ছেলেমেয়েদের শরীর ও মানসিক গঠনে বিরাট ভূমিকা রাখে। পাশাপাশি খেলাধুলা ও সংস্কৃতি চর্চা ছেলেমেয়েদের শৃঙ্খলাপূর্ণ জীবনযাপনে অভ্যস্ত হতে শিখায়।”

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অনূর্ধ্ব-১৬ এর খেলোয়াড়দের প্রত্যেকেই হাতে পুরস্কার ও কিছু উপহার সামগ্রী তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী । এ সময় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফুটবল উপহার দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই পর্বের ‘এফ’ গ্রুপের খেলা গত ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, লেবানন ও ভিয়েতনাম অংশ নেয়।