রবিবার ২২ জুলাই ২০১৮ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

গোবিন্দগঞ্জে খাবারে বিষ মিশিয়ে হত্যা চেষ্টা

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে বসত ভিটা দখলের জন্য ভাতে বিষ মিশিয়ে হত্যার চেষ্টায় থানায় অভিযোগের খবর পাওয়া গেছে।
অভিযোগে জানা গেছে, গত ১৪ মে উপজেলার অনন্তপুর গ্রামের ছামিনা বেওয়া, খোতেজা বেওয়া ও শিল্পী খাতুনকে হত্যার উদ্দেশ্যে তাদের ভাতের মধ্যে বিষ মিশিয়ে দেয় একই উপজেলার বকচর গ্রামের মৃত ফজেল হকের ছেলে খোকা মিয়া। খোকা মিয়া আতœীয় হিসেবে ঘটনার দিন সন্ধায় ওই বাড়ীতে যায়। ওই সময় শিল্পী খাতুন রাতের খাবার রান্না করতেছিল। সেই কারনে তাকে রান্নার পাশে বসতে দিয়ে পানি নিয়ে আসার জন্য বাহিরে যাওয়ার সুযোগে ভাতের মধ্যে বিষ মিশিয়ে দিয়ে চলে যায় খোকা মিয়া।
পরে রান্না করা রাতের খাবার খাওয়ার পর অসুস্থ্য হয়ে পরেন ছামিনা বেওয়া, খোতেজা বেওয়া ও শিল্পী খাতুন। তাদের অসুস্থ্যতার খবর পেয়ে প্রতিবেশী রাজু মিয়া , আব্দুল জলিল ও হোসেন আলীসহ অনেকেই এগিয়ে এসে তাদেরকে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নেয়া হলে ডাক্তার তাদেরকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকেè নেয়ার পরামর্শ দেয়। তাদেরকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেকেè নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফার্ড করে। বর্তমানে তারা সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এ বিষয়ে আরও জানা যায়, তাদের বসত ভিটা বে-দখল করে আতœসাতের উদ্দেশ্যে কয়েক জনের কু-পরামর্শে খোকা মিয়া খাবারের মধ্যে বিষ মিশানোর মত ঘৃর্ন কাজটি করেছে। উল্লেখ্য পরের দিন সকালে ওই খাবার মুরগীকে খাওয়ানের পর মুরগী মারা যায়। এ বিষয়ে খোকা মিয়াকে উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত নামা ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ হয়েছে।