বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চাঁদ মঙ্গল গ্রহের অংশ : ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এক মন্তব্যে জ্যোতির্বিজ্ঞান নিয়ে যারা পড়াশোনা করেন তাদের ভিমড়ি খাওয়ার দশা হয়েছে। শুক্রবার ট্রাম্প বলেছেন, চাঁদ হচ্ছে মঙ্গল গ্রহের অংশ। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসাকে নিয়ে একটি টুইট করতে যেয়ে তিনি এ মন্তব্য করেছেন।

ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমরা যার পেছনে সব অর্থ খরচ করছি সেই নাসার চাঁদে যাওয়া নিয়ে কথা বলা উচিত নয়, ৫০ বছর আগে আমরা সেই কাজটি করেছি। আমাদের করা আরও বড় বিষয়ের প্রতি তাদের মনোযোগ দেওয়া উচিত, যার মধ্যে মঙ্গল ( যার অংশ চাঁদ), প্রতিরক্ষা ও বিজ্ঞান!’ চাঁদকে নিয়ে যেসব তত্ত্ব প্রচলিত রয়েছে, তার মধ্যে একটি হচ্ছে পৃথিবী ও আরেকটি গ্রহের মধ্যে সংঘর্ষের ফলে চাঁদের উৎপত্তি। সেই হিসেবে এটাই প্রতিষ্ঠিত যে চাঁদ পৃথিবীর অংশ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ট্রাম্পের মন্তব্যের ব্যাপারে নাসার কাছে জানতে চাওয়া হলে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি নাসা।

বিজ্ঞানীদের ধারণা, লক্ষ কোটি বছর আগে পৃথিবীর সঙ্গে গ্রহসদৃশ কিছুর সংঘর্ষে সৃষ্ট ধ্বংসস্তূপ থেকেই চাঁদের উদ্ভব ঘটেছিল। পৃথিবীর এ উপগ্রহটি থেকে মঙ্গলের দূরত্ব প্রায় ১৪ কোটি মাইল দূরে। ট্রাম্পের এই টুইট তার প্রশাসনের মহাকাশনীতি নিয়েও ধোঁয়াশা বাড়িয়েছে। তিন সপ্তাহ আগে টুইটারে দেওয়া অন্য এক পোস্টে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিজেই যুক্তরাষ্ট্র ‘ফের চাঁদে যাচ্ছে’ বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। মে মাসে নাসার প্রশাসক জিম ব্রিডেনস্টাইনও ২০২৪ সালের মধ্যে চাঁদে ফের নভোচারী পাঠানোর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলেন। ব্রিডেনস্টাইনকে ট্রাম্পই নাসায় নিয়োগ দিয়েছিলেন। এর আগে গত বছরের অক্টোবরে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স অদূর ভবিষ্যতেই মার্কিনীরা আবার চাঁদে নামতে যাচ্ছে বলে আশার কথা শুনিয়েছিলেন।