মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ ৩০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল সারাদেশে চতুর্থ

মো. রফিকুল ইসলাম, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ ধারাবাহিক সাফল্য ধরে রেখেছে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল। প্রতি বছরের মতো এবারও মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় শতভাগ পাশের কৃতিত্ব অর্জন করে প্রতিষ্ঠানটি। গত রোববার ঘোষিত ফলাফলে অংশগ্রহণকারী সকল পরীক্ষার্থীই কৃতিত্বের সাথে পাশ করার গৌরব অর্জন করেছে। উপজেলা পর্যায়ে ফলাফলের ভিত্তিতে সেরাস্থান অর্জন করার পাশাপাশি শিক্ষাবোর্ড ও জেলায় সেরাদের সেরা হওয়ার স্থান লাভ করে নিয়েছে। বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, এবছর ১১০ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এবং সকলেই জিপিএ-৫ লাভ করেছে। এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সারাদেশে সকল বোর্ডের মধ্যে ১০টি সেরা প্রতিষ্ঠান নির্বাচিত করেছে। তার মধ্যে চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল সারাদেশের মধ্যে চতুর্থ স্থান অর্জন করেছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক জাতীয় র‌্যাঙ্কিং এর সুত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, ঢাকা ভিকারুন্নেসা নুন স্কুল এন্ড কলেজ ১৯৯৭জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ১৯৯৬জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়ে ১ম, বগুড়া জিলা স্কুল ২১৮জন অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়ে ২য়, মিলিটারী কলেজিয়েট স্কুল খুলনা ১৮০জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়ে ৩য় ও দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলায় আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল ১১০জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়ে ৪র্থ স্থান অর্জন করেছে। এছাড়াও জয়পুরহাট গার্লস ক্যাডেট কলেজ ৫৫জন অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়ে ৫ম, সিলেট ক্যাডেট কলেজ, বরিশাল ক্যাডেট কলেজ, রংপুর ক্যাডেট কলেজ ও পাবনা ক্যাডেট কলেজ ৫৪জন করে পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়ে যৌথভাবে ৬ষ্ঠ স্থান ও মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজ ৫২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়ে শতভাগ জিপিএ-৫ পেয়েছে।

চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের পরিচালক মমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিষ্ঠানের গর্বিত ফলাফলে আমরা উচ্ছ্বসিত। শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও পরিচালনা পর্যদের সমন্বিত প্রচেষ্টায় প্রতিবছরের ন্যায় এবারও এসএসসি পরীক্ষায় শতভাগ পাশের ধারাবাহিক কৃতিত্ব ধরে রাখা সম্ভব হয়েছে। ভবিষ্যতে তা অব্যাহত থাকবে বলে আশা করছি। এজন্য তিনি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, প্রতিষ্ঠানটি সিসিটিভি ক্যামেরা দ্বারা শিক্ষার্থীদের কঠোরভাবে মনিটরিং করা হয়।

যাতে ভবিষ্যতে ফলাফলের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা সম্ভবপর হয়। এজন্য তিনি সকলের নিকট দোয়া কামনা করেছেন।

সহকারী পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক রেজাউল করিম চৌধুরী জানান, সারাদেশের সেরা দশের মধ্যে অত্র বোর্ডের একটি প্রতিষ্ঠান ৪র্থ স্থান পাওয়ায় আমরা বোর্ডের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী আনন্দিত ও গর্ববোধ করছি। ওই প্রতিষ্ঠানটিকে ধারাবাহিকতা ধরে রাখার জন্য আরো কঠোর মনিটরিং করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান জানান, ওই প্রতিষ্ঠানটি একটি উপজেলা পর্যায় থেকে এ ফলাফল করায় অত্র শিক্ষাবোর্ড থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন জানানো হচ্ছে। পাশাপাশি ওই প্রতিষ্ঠানের পাঠদান পদ্ধতি বোর্ডের আওতাভূক্ত সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অনুসরণ করার অনুরোধ করা হচ্ছে। যাতে শিক্ষার মানোন্নয়ন বৃদ্ধি পায়।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email