মঙ্গলবার ২৩ অক্টোবর ২০১৮ ৮ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

জাতীয় ঐক্যের সমালোচনায় বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী ও কর্নেল অলি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যত ঘনিয়ে আসছে, সরকারবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো ঐক্য করার চেষ্টা তত জোরালো হচ্ছে। জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় ড. কামাল হোসেন ও অধ্যাপক ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে যুক্তফ্রন্ট নামে একটি নতুন জোট গঠন করা হয়েছে। জাতীয় ঐক্যের উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠা হওয়া জোটটি শুরু থেকেই নানা সমালোচনার সম্মুখীন হচ্ছে। এবার বাংলাদেশ কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি-(এলডিপির) সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম নতুন করে জাতীয় ঐক্য নিয়ে সমালোচনা করলো।

৮ সেপ্টেম্বর এলডিপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীর এলডিপিতে যোগদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কর্নেল অলি আহমদ বলেন, ‘ জাতীয় ঐক্যের নামে জনভিত্তিহীন-আসন বঞ্চিত নেতা, রাজনৈতিক দালাল ও বিতর্কিত সুশীলদের তৎপরতা বাড়ছে। এর থেকে উত্তরণে প্রয়োজন সবার অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ীদের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর। দেশকে বিশৃঙ্খলার হাত থেকে বাঁচাতে প্রয়োজন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও সবার অংশগ্রহণে নির্বাচন। মানুষের মধ্যে শান্তি ও স্বস্তি ফিরিয়ে আনতে প্রভাবমুক্ত নির্বাচনের বিকল্প নেই।’

কর্নেল অলি আহমদ বিএনপিকে জাতীয় ঐক্য নিয়ে যুক্তফ্রন্ট ও গণফোরামের সঙ্গে দৌড়ঝাঁপ প্রসঙ্গে বললেন, ‘জনবিচ্ছিন্ন ব্যক্তিদের নিয়ে এগোলে কোনো ফলাফল আসবে না। বিএনপি একটি শক্তিশালী দল। বিএনপিকে পুনর্গঠন করে এদেশে যে কোনো কাজ করা সম্ভব। সেই বিশ্বাস নিয়ে নেতাদের মাঠে নামতে হবে।

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী জাতীয় ঐক্যের সমালোচনা করে বলেন, ‘শেখ হাসিনার পতন, শেখ হাসিনাকে অপমান করা বা তার সরকারের পতন যদি জাতীয় ঐক্যের প্রচেষ্টা হয় তাহলে তাতে আমি সাড়া দিতে পারব না। একটা সুষ্ঠু, স্বাভাবিক ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের জন্য যা কিছু প্রয়োজন আমি করতে চাই। আমি জাতির কোন ক্ষতি করতে চাই না। জাতীয় ঐক্যের বর্ধিত সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, সেখানে আমি বলেছি, শেখ হাসিনার পতনের জন্য আমরা কোন আন্দোলনে আমি যাচ্ছি না‘।

তিনি আরও বলেন, ’জাতীয় ঐক্যের প্রচেষ্টা কিন্তু আজকের কথা না। দীর্ঘদিনের চেষ্টা। এখানে প্রশ্নটা হলো, এই ঐক্যের প্রচেষ্টা যদি শুধুমাত্র শেখ হাসিনাকে লাঞ্ছিত করা, অপমানিত করা, তার নিরাপত্তা বিঘ্নিত করার জন্যে হয় সেই কাজে আমি সাড়া দিতে পারবো না। আমি চাই, তার সরকার ঠিক চলুক, রাজনৈতিক ভারসাম্য থাকুক’।

জাতীয় ঐক্য নিয়ে দুই নেতার এমন মন্তব্যে রাজনৈতিক অঙ্গনে নতুন করে জাতীয় ঐক্য নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে ।