বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরনোত্তর চক্ষুদান দিবসের আলোচনা সভা

কাশী কুমার দাস, স্টাফ রিপোর্টার ॥ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ আহাদ আলী বলেছেন বর্তমান দেশে ১.৫ লক্ষ মানুষ চোখের সমস্যায় মানবেতন জীবন যাপন করছে। মরনোত্তর চক্ষু দান করতে পারলে তারা চোখের আলো ফিরে পাবে এবং এই সুন্দর পৃথিবী দেখতে পাবে। অজ্ঞতা ও কুসংস্কারের কারণে আমরা স্বেচ্ছায় রক্তদান থেকে বিরত থাকি। এ ব্যাপারে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে হবে। মনে রাখবেন, জাত-পাতের বৈষম্য দূর করে এক ব্যাগ রক্তই পারে একজন মুর্মূর্ষূ রোগীর জীবন বাঁচাতে।

“রক্তের জাত নাই, দৃষ্টিতে মৃত্যু নাই”  এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ২ নভেম্বর শনিবার সিভিল সার্জন কার্যালয় ও ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল আয়োজিত এবং তৈয়বা মজুমদার রেডক্রিসেন্ট রক্তকেন্দ্র ও সন্ধানী দিনাজপুরের সহযোগিতায় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় জাতীয় স্বেচ্ছায় রক্তদান ও মরনোত্তর চক্ষু দান দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শেষে দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজ হল রুমে আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন। দিনাজপুর সরকারি সিটি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রেডক্রিসেন্ট রক্ত কেন্দ্রের আহবায়ক মোঃ বজলুর হক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সফিকুল ইসলাম, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ  নাজমুল ইসলাম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেনারেল হাসপাতালের চক্ষু বিষয়ক কনসাটেন্ট ডাঃ মোঃ আরিফুল ইসলাম, সন্ধানী এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ইউনিটের সদস্য মোঃ আরিফুল ইসলাম নাসিম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর সাবেক সহকারী পরিচালক ডাঃ মোঃ আজগার আলী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সহযোগী অধ্যাপক আলী আহসান। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ে সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম। সকাল ১০ টায় সিভিল সার্জন কার্যালয় হতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান প্রদক্ষিণ করে।