শনিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

জানুয়ারিতে মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচয় পত্র দেয়া হবে-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেছেন, আগামি জানুয়ারিতে মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচয় পত্র দেয়া হবে। পরিচয় পত্রের পেছনে তারা কি কি সুযোগ সুবিধা পাবেন তা লেখা থাকবে।

তিনি আজ সকালে গাজীপুরের রথখোলায় বঙ্গতাজ মিলনায়তনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটি ঢাকা-ময়মনসিংহ বিভাগের মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় উদ্বোধকের বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর জম্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১৫ হাজার দু:স্থ মুক্তিযোদ্ধাদের ঘর বাড়ি করে দেয়া হবে যার প্রত্যেকটির মূল্য হবে ১৫ লাখ টাকা।

তিনি বলেন, বিসিএস এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠ্যবইয়ে মুক্তিযোদ্ধা ও রাজাকারদের ভূমিকা নিয়ে লেখা সংযুক্ত করা হবে। আগামী ১৬ ডিসেম্বরের আগে সকল রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা হবে ।

আগামী জানুয়ারিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সকল কবর একই ডিজাইনে করে দেয়ার প্রকল্পের কাজ শুরু হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা নিয়ে অসন্তোষ আছে। যা হওয়া উচিত তা হয়নি। আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর শত বর্ষপূর্তির বছর ২০২০সালে তা পূরণ করবেন।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মো. রশিদুল আলম। গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা কাজী মোজাম্মেল হক, গাজীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য মো. আখতারুজ্জামান, গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইকবাল হোসেন সবুজ ।

অনুষ্ঠানে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধকালীন তাদের বিভিন্ন অভিজ্ঞতা ও বর্তমানে তাদের বিভিন্ন সমস্যার বিষয় তুলে ধরেন।