শনিবার ২০ জানুয়ারী ২০১৮ ৭ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ট্রাম্পের নতুন পাকিস্তান-নীতির বাস্তবায়ন শুরু!

Trump--goes--on--foreign--policy--offensive--a-t--start--of--2018-Rtv--Rtv-Online-????????? -???? -?????????-?????- ?????????- ????!

বিগত মার্কিন প্রশাসনগুলো সন্ত্রাসবাদ বিরোধী লড়াইয়ের যৌথ সহযোগিতার নামে পাকিস্তানকে হাজার হাজার কোটি ডলার দিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেছে। অন্যদিকে ট্রাম্প প্রশাসন ব্যর্থ হয়ে এবার অর্থ সহায়তা স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন। দুই দেশের কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে দক্ষিণ এশীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, এটাই ট্রাম্পের নতুন পাকিস্তান নীতি।

যুক্তরাষ্ট্র আর তাদের মিত্ররা দীর্ঘদিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে পাকিস্তান আফগান তালেবান ও তাদের মিত্র হাক্কানি নেটওয়ার্ককে নিরাপদ স্বর্গ গড়ে তুলতে দিয়েছে। আর সন্ত্রাসীরা তা ব্যবহার করে সীমান্ত অতিক্রম করে আফগানিস্তানে হামলা চালাচ্ছে। পাকিস্তান বরাবর এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসলেও ট্রাম্প দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে ইসলামাবাদের বিরুদ্ধে কঠোর সমালোচনা করেছেন।

কূটনৈতিক সূত্রকে উদ্ধৃত করে ডন জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের নতুন আফগান নীতির মূল লক্ষ্য সামরিকভাবে তালেবানকে পরাজিত করা এবং কাবুলের শর্ত মোতাবেক তাদেরকে আফগান শান্তি প্রক্রিয়ায় যোগ দিতে বাধ্য করা।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কূটনৈতিক সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় ইকোনমিক টাইমস বলছে, পাকিস্তান আর আফগানিস্তানে ‘সন্ত্রাসীদের অভয়াশ্রমগুলো’ ধ্বংস করার পরিকল্পনা করছে বর্তমান প্রশাসন। ট্রাম্প প্রশাসনের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার মন্তব্য করেন, এটাই ট্রাম্পের নতুন নীতি।

সম্প্রতি এক টুইটার বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার ও সন্ত্রাসবাদে মদদের অভিযোগ তোলার পর ৫ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে সাহায্য বন্ধের ঘোষণা আসে। প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস জানান অর্থ সহায়তা বন্ধ হলেও পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক রেখে চলবে যুক্তরাষ্ট্র।

আর পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব তাহমিনা জানজুয়া গত শনিবার স্পষ্ট করেছেন, এই অঞ্চলে মার্কিন উপস্থিতির কারণেই তাদের সঙ্গে সম্পর্ক রেখে চলতে চায় পাকিস্তান।