শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ট্রেনের টিকেট বিক্রির চৌদ্দ লাখ টাকা আত্নসাত ডোমার স্টেশনের বুকিং সহকারী সাময়িক বরাখাস্ত

ডোমার (নীলফামারীর) প্রতিনিধি॥ ট্রেনের টিকেট বিক্রি ও মালামাল বুকিং এর ১৪ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ উঠেছে নীলফামারীর ডোমার রেলস্টেশনের বুকিং সহকারী হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় একটি তদন্ত টিম ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় উক্ত বুকিং সহকারীকে চাকুরী হতে বরখাস্ত করেছে। সেই সঙ্গে আগামী ৫ দিনের মধ্যে ওই ১৪ লাখ টাকা রেলের হিসাবে জমা দেয়ার নির্দেশ প্রদান করা হয়।

শুক্রবার পশ্চিমাঞ্চল রেলের পাকশী বিভাগের এ্যাসিটেন্ট কমার্শিয়াল অফিসার মোঃ মজিবর রহমান ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, অভিযোগের সুত্র ধরে গত মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুই সদস্যের একটি তদন্ত টিম ডোমার রেলস্টেশনে আসে। দীর্ঘদিন থেকে বুকিং সহকারী হুমায়ুন গ্রেড-২ অফিসের টাকা তছরুফ সহ নানা অনিয়ম করে আসছিল। এদিন বিকালে ডোমার রেলষ্টেশনের টিকেট ও মালামাল বুকিং এর হিসাব তদন্ত করা হয়। তদন্তে বেড়িয়ে আসে আন্তঃনগর নীলসাগর,রুপসা,সীমান্ত বরেন্দ্র ও তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট বিক্রির প্রায় ১৪ লাখ টাকা রেলের হিসাবে জমা করা হয়নি। যার দায়ভার বর্তায় বুকিং সহকারী হুমায়ুন কবিবের বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর তদন্ত দলটি উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের বিষয়টি অবগত করে। তারই আলোকে আগামী ৫ দিনের মধ্যে উক্ত ১৪ লাখ টাকা রেলের হিসাবে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয় বুকিং সহকারী হুমায়ুন কবিরকে। সেই সঙ্গে তাকে চাকুরী থেকে সাময়িক বরাখাস্ত করা হয়।

ডোমার রেলস্টেশনের স্টেশন মাস্টার আব্দুল মতিন বলেন, টাকার বিষয়টি আমি উর্ধতন কর্মকর্তাকে জানিয়েছি। তদন্তটিম এসে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে।