রবিবার ২৫ অগাস্ট ২০১৯ ১০ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ডঃ ওয়াজেদ বাংলাদেশের মান মর্যাদা বিশ্বে তুলে ধরেছিলেন-হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

সাহেব, দিনাজপুর ঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি আন্তজার্তিক খ্যাতি সম্পন্ন পরমানু বিজ্ঞানী ডঃ এম.এ ওয়াজেদের প্রতি স্মরন করে বলেন, বাংলাদেশে এমন একটি মানুষ জন্ম নিয়েছিল যে মানুষটি বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের মান মর্যাদাকে তুলে ধরেছিলেন। তারই সহধর্মীনি শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হয়ে এ দেশ উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করেছেন। মরহুম ডঃ ওয়াজেদের স্বপ্ন ছিল এ দেশ হবে ক্ষুদা, দারিদ্র ও নিরক্ষতা মুক্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে সে দিকেই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। ২০৩০ সালের মধ্যে এ দেশ হবে ক্ষুধা,দারিদ্র, নিরক্ষতা মুক্ত। তিনি দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি এ্যাড.আমজাদ হোসেনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, আমৃত্যু বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব অর্জিত এবং যুদ্ধাপরাধী, রাজাকার, আলবদরদের বিরুদ্ধে লড়াই করে গেছেন। হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি ৯ মে বৃহস্পতিবার দিনাজপুরে ডঃ এম.এ ওয়াজেদের ১০ম মৃত্যু বার্ষিকী ও সাবেক এমপি, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আমজাদ হোসেনের ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও ইফতার মাহফিলে এ সব কথা বলেন। দিনাজপুর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও শহর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান ইমদাদ সরকার। শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজুর সঞ্চালনে বিশেষ অতিথি ছিলেন বৃহত্তর দিনাজপুর মহিলা সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই, দিনাজপুর শহর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রায়হানুল কবীর সোহাগ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক তারিকুন বেগম লাবুন, জেলা যুব লীগের সভাপতি রাশেদ পারভেজ, সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, শহর মহিলা লীগের আহবায়িকা খ্রীষ্টিনা লাভলি দাস, যুগ্ন আহবায়িকা সেহেলী আক্তার ছবি, জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি তানভীর ইসলাম রাহুল, শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক শাহ রেজওয়ানুর রহমান পলাশসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা লীগসহ সর্বস্তরের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিল।