শুক্রবার ১৭ অগাস্ট ২০১৮ ২রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

ড্রোন হামলায় প্রাণে বাঁচলেন ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট

ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো বলেছেন, বিস্ফোরকবোঝাই ড্রোন ব্যবহার করে তাকে হত্যার চেষ্টা থেকে বেঁচে গেছেন তিনি। রাজধানী কারাকাসে সেনাবাহিনীর ৮১তম বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেওয়ার সময় এই হামলার ঘটনা ঘটে। খবর- বিবিসির।

ওই ঘটনার লাইভ ফুটেজে দেখা গেছে, প্রেসিডেন্ট মাদুরো ভাষণ দেয়ার সময় হঠাৎ করে ওপরের দিকে তাকিয়ে হতভম্ব হয়ে যান। এসময় কয়েক ডজন সেনাসদস্যকে সেখান থেকে দৌড়ে চলে যেতে দেখা যায়।

এই হামলার জন্য কলম্বিয়াকে দায়ী করেছেন প্রেসিডেন্ট মাদুরো। তবে এই অভিযোগ ‘ভিত্তিহীন’ বলে তা উড়িয়ে দিয়েছে বোগোটা।

ভেনেজুয়েলার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই হামলার ঘটনায় সাত সেনাসদস্য আহত এবং আরও কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির যোগাযোগমন্ত্রী জর্জ রদ্রিগেজ বলেছেন, প্রেসিডেন্ট স্ট্যান্ডের কাছে বিস্ফোরকবোঝাই দুটি ড্রোনের বিস্ফোরণ ঘটে।

পরে জাতির উদ্দেশ্যে প্রেসিডেন্ট মাদুরো বলেন, একটি উড়ন্ত বস্তু আমার সামনে বিস্ফোরিত হয়, এটা বড় বিস্ফোরণ ছিল। এর কিছুক্ষণ পর আরও একটি বিস্ফোরণ ঘটে।

প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোকে বর্ম দিয়ে রক্ষার চেষ্টা তার দেহরক্ষীদের

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে, প্রেসিডেন্ট মাদুরোর দেহরক্ষীরা বুলেটপ্রুফ বর্ম দিয়ে তাকে রক্ষা করছেন।

প্রেসিডেন্ট মাদুরো অভিযোগ করেন, তাকে হত্যায় প্রতিবেশী কলম্বিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের উসকানিতে এটি ভেনেজুয়েলার ‘একটি ডানপন্থী গ্রুপের ষড়যন্ত্র’।

তিনি আরও বলেন, ‘কোনও সন্দেহ’ নেই কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট হুয়ান মানুয়েল সান্টোস ‘এই হামলার পেছনে’ রয়েছেন।