শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঢাবি শিক্ষার্থী শুভ হত্যার বিচারের দাবীতে লালমনিরহাটে মানববন্ধন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী জাকারিয়া বিন হক শুভ(২৮) মৃত্যুর বিচারের দাবিতে অন্যদের সঙ্গে এসেছেন বড় বোন হাসিনা নাজনিন বিনতে হক। কেঁদে কেঁদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চাইলেন বিচার। তার মত ওই মানববন্ধনে হাজার হাজার মানুষ অংশ গ্রহন করে এই হত্যার বিচার চেয়েছেন। চেয়েছেন সরকারের কাছে সহযোগীতাও।

রোববার(২৭সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টা টাকা থেকে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের কালীগঞ্জ উপজেলার তুষভান্ডারবাজারে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করে। এতে হত্যার প্রতিবাদ ও দোষীদের ফাঁসির দাবিতে এ মানববন্ধনে অংশ নেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এসময় আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষী, এলাকাবাসী, ব্যবসায়ী, শিক্ষার্থীসহ নানা শ্রেণি-পেশার সহস্রাধিক মানুষ রাস্তার দুইপাশে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী দাঁড়িয়ে মানববন্ধনে হত্যাকারীদের বিচার দাবি করেন।

জানা গেছে, রাজধানীর মোহাম্মদপুরের তাজমহল রোডের শুভ’র স্ত্রীকে নিয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতো। সেখান থেকে গত বৃহস্পতিবার(২৪সেপ্টেম্বর) রাত নয়টার দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের তাজমহল রোডের বাসা থেকে শুভর মরদেহ উদ্ধার করে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। নিহত জাকারিয়া বিন হক শুভ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার উত্তর ঘনেশ্যাম(এমসি মোড়) এলাকার আব্দুল হকের ছেলে।

এঘটনায় নিহত শুভ’র বড়বোন হাসিনা নাজনিন বিনতে হক বাদি হয়ে শুক্রবার(২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর থানায় একটি হত্যায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় শুভর স্ত্রী শেহনীলা নাজ ও শাশুড়ি আছমা বেগমসহ অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে মোহাম্মদপুরের বাবর রোডে তার প্রথম জানাজা শেষে বন্ধু-স্বজনরা মরদেহ নিয়ে গ্রামের বাড়ির পথে রওনা দেন। রাত সাড়ে ১১টার দিকে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের তুষভান্ডার বাজারে শুভ’র মরদেহ এলেই বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে।

এদিকে মামলার ৩দিন হলেও আসামী গ্রেফতার না হওয়াতে শুভ হত্যার বিচার দাবীতে রোববার(২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে দোকান পাট বন্ধ রেখে লালমনিরহাট বুড়িমারী মহাসড়কের মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী ও স্বজনরা। সুষ্ঠ তদন্তপুর্ব অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন বক্তরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদ, তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নুর ইসলাম,নিহত শুভ’র বড়বোন হাসিনা নাজনিন বিনতে হক, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রেফাজ রাঙ্গা, কালীগঞ্জ প্রেস ক্লাব সভাপতি আমিরুল ইসলাম হেলাল, উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ বাবু প্রমুখ।

নিহতের বন্ধু-বান্ধব, আত্নীয় স্বজন, এলাকাবাসী ও তুষভান্ডার বাজারের ব্যবসায়ীরা মানববন্ধনে অংশ নেয়। মানববন্ধন শেষে নিহত শুভ’র আত্নার শান্তি কামনা করে মুনাজাত করা হয়। এরপর বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে তুষভান্ডার বাজার প্রদক্ষিন করে প্রেস ক্লাব চত্ত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email