শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দলীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দিল্লির মসনদে বিজেপি।২৯ মে শপথ

ভারতের ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছিল রবিবার (১৯ মে)। মোট ৫৪৩ আসনের মধ্যে ৫৪২ আসনে ভোটগ্রহণ হয়। সরকার গঠন করতে কোনও দল বা জোটকে পেতে হবে ২৭২ আসন। সাত দফায় ভোট গ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার(২৩ মে) ভোটযুদ্ধের ফলাফল ঘোষণা করার কথা থাকলেও ‘ইলেকসন কমিশন অব ইন্ডিয়া’ (ইসিআই) এর ফলাফল প্রকাশ করেছে শুক্রবারের প্রথম প্রহরে। খবর ‘ইন্ডিয়া টুডে’।

ভারতের নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভারতীয় জনতা পার্টি( বিজেপি) একাই সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় ২৭২ আসনের চেয়ে বেশি আসন পেয়েছে। ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি একাই পেয়েছে ৩০৩ টি আসন। আর বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট মোট আসন ৩৫০ টি আসনে জয় পেয়েছে। ভরাডুবি হয়েছে বিজেপির বিরোধী শিবিরে। প্রধান বিরোধী দল রাহুল গান্ধীর কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ৫২ টি আসন। আর কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট পেয়েছে ৯২ টি আসন। প্রধানমন্ত্রীকে জয়ের জন্য অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

বৃহত্তম দল হিসেবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে বিজেপি। সুতরাং আগামী পাঁচ বছরের জন্য দিল্লির মসনদে বসতে যাচ্ছে ৩৫০ আসনে জয়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন এনডিএ।

হিন্দি বলয়ে অর্থাৎ গুজরাট, এবং মহারাষ্ট্রের মতো রাজ্যগুলিতে ভাল সাড়া পেয়েছে বিজেপি। । অন্যদিকে, বাংলা, ওড়িশা ও উত্তর-পূর্বেও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক আসন পেয়েছে বিজেপি। কংগ্রেস-কুমারস্বামীর জোট ক্ষমতায় থাকা রাজ্য কর্ণাটকেও ভাল ফল করেছে বিজেপি।

নির্বাচনের ফলাফল স্পষ্ট হতেই ট্যুইটে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী লেখেন, আমরা একসঙ্গে বেড়েছি। একসঙ্গে সমৃদ্ধ হচ্ছি। আমরা একসঙ্গে শক্তিশালী এবং সমৃদ্ধ ভারত তৈরি করব।

বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ টুইট করেন, এটা ভারতের জয়। এই বড় জয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উন্নয়ন এবং তার প্রতি আস্থার জয়।কোটি কোটি বিজেপি কর্মীর তরফে আমি নরেন্দ্র মোদীকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

দ্বিতীয়বার জিতে ক্ষমতায় আসার পরেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে শুভেচ্ছা জানালেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এবং ‘দেশের স্বার্থ’ রক্ষায় নজর দিতে বলেছেন। আমেঠিতে পরাজয় স্বীকার করে নেন তিনি এবং স্মৃতি ইরানিকে ওই অঞ্চলকে ভালোবাসার সাথে রক্ষা করতে বলেছেন।

রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতির পদে ইস্তফা দিতে চেয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেলেও তা গ্রহণ করতে চায় নি দল। দক্ষিণের রাজ্যগুলির মধ্যে কর্ণাটকের ২৮ আসনের মধ্যে ২৫টি আসন পেয়েছে বিজেপি। সেখানে ক্ষমতায় রয়েছে কংগ্রেস ও কুমারস্বামীর জনতা দল সেকুলারের জোট। বৃহস্পতিবার এক বছর পূর্ণ করল কংগ্রেস সরকার।