বুধবার ১ এপ্রিল ২০২০ ১৮ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দাবানল থেকে বাঁচতে সৈকতের দিকে ছুটছে হাজারো মানুষ

অস্ট্রেলিয়ায় চলমান ভয়াবহ দাবানল এবার সেখানকার সমুদ্র তীরবর্তী বেশ কয়েকটি শহরের দিকেও ছড়িয়ে পড়েছে। ধেয়ে আসা সেই দাবানল থেকে প্রাণে বাঁচতে আশ্রয়ের খোঁজে হাজার হাজার মানুষ সেখানকার সমুদ্র উপকুলের দিকে পালাচ্ছে।

মঙ্গলবার সকালে ভিক্টোরিয়া অঙ্গরাজ্যের শহর মাল্লাকোটার দিকে ধেয়ে আসা এক দাবানল ঝুঁকিতে ফেলেছে বহু বাড়িঘর। স্থানীয়রা বলছেন, লাল হয়ে ওঠা আকাশের নিচে সমুদ্রে নৌকায় বা উপকূলে তাঁবু বানিয়ে বসবাসের অভিজ্ঞতা ভয়ানক।

পরিস্থিতি মোকাবেলায় কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার সামরিক বাহিনীর সাহায্য চেয়েছে।

আগুন নেভাতে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার দমকল কর্মীদেরও সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে, জানিয়েছে রয়টার্স।

দাবানল সোমবার রাতেই আরও দুইজনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এ নিয়ে অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া এ দুর্যোগে নিহতের সংখ্যা ১১’তে পৌঁছেছে বলে কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়া দাবানল কবলিত দুটি অঙ্গরাজ্য থেকে মোট সাতজন নিখোঁজ রয়েছে। এর মধ্যে চার জন ভিক্টোরিয়া থেকে ও অপর তিনজন নিউ সাউথ ওয়েলস থেকে।

ভিক্টোরিয়া অঙ্গরাজ্য প্রশাসন বলছে, নিখোঁজদের নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের সত্যিকার শঙ্কা রয়েছে। তারা আগুন সক্রিয় এলাকায় ছিল। এখন তাদের কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

কয়েকমাসের ভয়াবহ এ দাবানল অস্ট্রেলিয়ার চার লাখেরও বেশি হেক্টর জমিকে বিনষ্ট করেছে; চলতি সপ্তাহের তাপদাহ এবং তীব্র বাতাস দাবানলকে আরো শক্তিশালী করে তুলছে।

বাড়তে থাকা তাপমাত্রা ও জোর বাতাসের কারণে দু’শতাধিকেরও বেশি বড়-ছোট দাবানলে এখন দেশটির দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় অঙ্গরাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলস ও ভিক্টোরিয়ার বিস্তৃত অঞ্চল পুড়ছে। ঝুঁকির মধ্যে আছে বেশ কয়েকটি শহরও।

কর্তৃপক্ষ এরই মধ্যে দাবানলের পথে থাকা বাসিন্দাদের দ্রুত এলাকা ছেড়ে সমুদ্রসৈকতের কাছাকাছি আশ্রয় নিতে পরামর্শ দিয়েছে ও খাদ্য-পানি সরবরাহের জন্য নৌবাহিনীর জাহাজ মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email