শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরের মধ্যপাড়া খনিতে পাথর উৎপাদন বৃদ্ধি গত এক মাসে ২২ কোটি টাকার পাথর বিক্রি

মেহেদী হাসান উজ্জল, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মাানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) এর ব্যবস্থাপনায় পাথর উৎপাদন বেড়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিনত হতে চলেছে দিনাজপুরের মধ্যপাড়া পাথর খনিটি।এর সফলতায় গত এক মাসে ২২ কোটি টাকার পাথর বিক্রি হয়েছে।

খনি সুত্রে জানা গেছে, খনির পাথর উত্তোলন ও রক্ষাবেক্ষন কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্টান জার্মাানীয়া-ট্রেস্ট কনসোর্টিয়াম ( জিটিসি) খনি উৎপাদন কাজে উন্নয়ন করে নতুন স্টোপ থেকে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন বেড়েছে। পাথর উত্তোলন বৃদ্ধি পাওয়ায় পাথর বিক্রিও বাড়ছে। চলতি বছরের  গত ফেব্রুয়ারী  মাসে  জিটিসি কর্তৃক প্রায় ৯০ হাজার মেট্রিক টন পাথর উত্তোলন করা হয়েছে। জিটিসি কর্তৃক উত্তোলিত সেই পাথর প্রায় ২২ কোটি টাকায় বিক্রি করে মধ্যপাড়া খনি কর্তৃপক্ষের  লাভ  হয়েছে প্রায় ৮ কোটি টাকা। প্রথমবারের মত পাথর বিক্রয় করে মধ্যপাড়া খনি কর্তৃপক্ষ লাভের মুখ দেখেছে।

খনির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মাানীয়া-ট্রেষ্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) এর জেনারেল ম্যানেজার জাবেদ সিদ্দিকি জানান,খনির ভু-গর্ভে অত্যাধুনিক ও বিশ্ব মানের মেনিশনপত্র ও যন্ত্রাংশ স্থাপনের ফলে প্রতিদিন পাথর উত্তোলন বাড়ছে। গত ফেব্রয়ারী মাসে ২৩ দিনে (সাপ্তাহিক ছুটি ও সরকারী ছুটি ব্যাতীত) জিটিসি খনির অপারেশনাল কার্যক্রম চালিয়ে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন করেছে প্রায় ৯০ হাজার মেট্রিক টন। যার প্রতিদিন গড় উৎপাদন ছিল প্রায় ৪ হাজার মেট্রিক টন। আরো জানায়, প্রতিদিন তিন শিফটে পাথর উত্তোলনের পরিমান যে হারে বাড়ছে, অল্প কিছু দিনের মধ্যে জিটিসি’র দ্বারা তিন শিফটে  প্রতিদিন পাথর উত্তোলন সাড়ে ৫ হাজার মেট্রিক টনে পৌঁছাবে। যা মধ্যপাড়া পাথর খনির নির্ধারিত ও কাংখিত লক্ষ্যমাত্রা এবং খনির পাথর উত্তোলনের ক্ষেত্রে হবে নতুন রেকর্ড। এবং একই সঙ্গে জিটিসি’র বিদেশী বিশেষজ্ঞদের ব্যবস্থাপনায় মধ্যপাড়া পাথর খনিটি  বাংলাদেশ সরকারের সবচেয়ে লাভজনক প্রতিষ্ঠান বলে গণ্য হবে , যা ইতিপুর্বে ছিল অকল্পনীয়।