শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে আনার পথে ডেঙ্গু আক্রান্ত ঠাকুরগাঁওয়ের মেধাবী ছাত্রীর মৃত্যু

দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ ঠাকুরগাঁও থেকে দিনাজপুর দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসার পথে ডেঙ্গু আক্রান্ত এবারে এইচ এসসি পাস করা মেধাবী ছাত্রী অপি রানী রায় (১৭) মারা গেছে।

শুক্রবার বিকাল ৫ টায় দিনাজপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে  মৃত ঘোষনা করেন। এ নিয়ে ঠাকুরগাওয়ের দুই জন ডেঙ্গু রোগী মারা গেল।

ডেঙ্গু রোগে মৃত্যু মেধাবী ছাত্রী অপি রানী রায় ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকেল উপজেলার লেহেম্বা গ্রামের অনুকুল চন্দ্র রায়ের একমাত্র মেয়ে। সে এবার  রংপুর ক্যান্টপাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগ থেকে  গোল্ডেন এ প্লাস নিয়ে পাস করে ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি হওয়ার জন্য ঢাকা ফার্মগেটে উদ্ভাস কোচিং এ কোচিং করছিল।

অপি রানী রায়ের মামী ঠাকুরগাঁও নাসিং ইনষ্টিটিউটের নাসিং ইন্সিকেক্টর অঞ্জিলি রানী রায় জানা জানান, অপি রানী রায় গত ৪ আগষ্ট ঢাকা তেকে জ্বর নিয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে আসে। ৫ আগষ্ট  ডেঙ্গু পরীক্ষা করলে ৬৫% ডেঙ্গু ধরা পড়ে। ঐ দিনই তাকে ঠাকুরগাঁও সদর হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়। শুক্রবার তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঠাকুরগাঁও থেকে দিনাজপুর দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হচ্ছিল। কিন্তু দিনাজপুরের বীরগঞ্জে আসার পর সে অচেতন হয়ে পড়ে। তাকে দ্রুত দিনাজপুর দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার আগেই পথে দিনাজপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক  ডাঃ ফারহানা আক্তার তাকে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন। এর আগে গত ৬ আগষ্ট একই উপজেলার নেকমরদ গ্রামের নয়ন ইসলামের ছেলে মাদ্রাসার ছাত্র রবিউল ইসলাম (১৭) দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। সেও ঢাকায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়েছিল।