শুক্রবার ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুরে দলিত ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির ভূমি আইন বিষয়ক সচেনতামূলক কর্মশালা

রফিকুল ইসলাম ফুলাল ॥  উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের বসবাসরত দলিত ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির মানুষদের ভুমি আইন সম্পর্কিত বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে দিনাজপুরে অনুষ্ঠিত হলো দিনব্যাপী কর্মশালা।

বুধবার সকালে দিনাজপুর বন্ধন কমিউনিটি সেন্টারে দিনব্যাপী অনুিষ্ঠত কর্মশালায় উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের বসবাসরত দলিত  ও ক্ষুদ্র নৃ-তাত্বিক জনগোষ্ঠির প্রায় অর্ধ শতাধিক মানুষ অংশ নেয়। কর্মশালায় অংশগ্রহনকারীদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে ভুমি আইন সর্ম্পকিত বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে আলোচনা করেন বক্তারা ।

গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র ও হেকস/ইপার সহযোগীতায়“এক্সিলারেটিং লাইভলীহুড অপশনস ফর দি দলিত এ্যান্ড এথনিক কমিউনিটিস্(আলো) প্রকল্প এ কর্মশালার আয়োজন করে।  গ্রাম বিকাশ কেন্দ্রের প্রধান নির্বাহী মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দিনাজপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(রাজস্ব) আবু সালেহ মো: মাহফুজুল আলম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হেকস / ইপার এর কান্ট্রি ডিরেক্টর অনিক আসাদ, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবু বক্কর সিদ্দিক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডিসি মাহফুজুল আলম বলেন,দলিত ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি ও আদিবাসীদের সকল সম্প্রদায়ের মানুষদের জীবনমান উন্নয়ন ও পুনর্বাসনের জন্য সরকার কাজ করছে। এ সমতলের জনগোষ্ঠী তাদের কৃষি ও অকৃষি জমি বন্দোবস্তের জন্য কোন ভোগান্তির শিকার হলে তা কঠোর হস্তে দমন করা হবে।  এছাড়া ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ভূমি আইন বিষয়ক যেমন নামজারি, দাখিলা, জমির দলিল ও দখল সম্পর্কিত বিষয়ে সচেষ্ট হতে দিক নির্দেশনা মূলক বক্তব্য দেন। বিনামূল্যে সরকারি আইনী সেবায় জেলা লিগ্যাল এইড কাজ করছে। তিনি আরও বলেন জমির খাজনা, ভূমি রেজিস্ট্রেশন, জমি কেনার আগে ও পরে করনীয়, দলিল সঠিক আছে কিনা তা দেখে স্থানীয় ভূমি অফিসের সেবা সমূহ সম্পর্কিত বিষদ আলোচনা করেন। প্রধান অতিথি কর্মশালায় উপস্থিত আদিবাসীদের বিভিন্ন সমস্যামূলক প্রশ্নের উত্তর দেন।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন গ্রাম বিকাশ কেন্দ্রের সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার সারা মারান্ডি এবং মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আলো প্রকল্পের প্রজেক্ট ম্যানেজার নুরে আলম। দ্বিতীয় অধিবেশনে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন এ্যাড.রির্চাড মূর্মূ,

কর্মশালায় দলিত জনগোষ্ঠির ৫০জন প্রতিনিধিসহ সরকারী বেসরকারী এবং গনমাধ্যমের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সার্বিক তত্বাবধান করেন প্রজেক্ট অফিসার মো: ফিরোজ আহমেদ,টেকনিকাল অফিসার দিপাংকর বসাক।

উল্লেখ,গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র ও সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক দাতা সংস্থা হেকস/ইপার এর আর্তিক সহযোগীতায় এক্সিলারেটিং লাইভলীহুড অপশনস ফর দি দলিত এ্যান্ড এথনিক কমিউনিটিস্(আলো) প্রকল্পটি দিনাজপুরের পার্বুতীপুর,ফুলবাড়ি এবং নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলায় বসবাসরত দলিত ও ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠির জনবহুল স্থানগুরোতে প্রবেশাধিকার বৃদ্ধি,মৌলিক সেবাসমুহে প্রবেশাধিকার,আয় ও জীবনমান উন্নয়ন এবং ভুমিতে প্রবেশাধিকার ও নিয়ন্ত্রণ এর ক্ষেত্রে কাজ করছে।