সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০ ২৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর জেলা কারাগার সংলগ্ন রেইনবো সুপার মার্কেটে ভয়াবহ আগুন ॥ ২৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল পুড়ে ছাই

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুর শহরের রেইনবো সুপার মার্কেটে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে পুড়ে গেছে প্রায় ২৫ লক্ষ টাকার মালামাল।

শনিবার (৯ অক্টোবর) বেলা ১১টা ২০ মিনিটের সময় দিনাজপুর শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত জেলা কারাগারের পাশে রেইনবো সুপার মার্কেটে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের ৪টি ইউনিট  প্রায় আধা ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে ৩টি দোকানের মালামাল পুরোপুরি ও ২টি দোকানের মালামাল আংশিক পুড়ে গেছে।

তবে আগুনের সূত্রপাত নিয়ে দু’ধরনের তথ্য পাওয়া গেছে। কেউ কেউ বিদ্যুতের সর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, আবার কেউ কেউ মোটরসাইকেলের ট্যাংকি পরিষ্কার করার সময় মোমবাতি থেকে ট্যাংকির ভিতরে থাকা পেট্্েরালে আগুন ধরে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার বেলা ১১টা ২০ মিনিটের সময় দিনাজপুর জেলা কারাগারের পাশে কারাগার পরিচালনাধীন রেইনবো সুপার মার্কেটে অবস্থিত ‘কুরবান অটো’ নামে একটি মোটরসাইকেল সার্ভিসিংয়ের দোকানে এই আগুনের সূত্রপাত হয়। ওই দোকানের মেকানিক্স মোটরসাইকেলের ট্যাংকি পরিষ্কার করার সময় মোমবাতি জ¦ালিয়ে ট্যাংকির ভিতরের বস্তু দেখার চেষ্টা করে। এ সময় মোমবাতি থেকে ট্যাংকির ভিতরে থাকা পেট্্েরালে আগুন ধরে বিকট শব্দে ট্যাংকি বিষ্ফোরিত হয়ে দোকানের ভিতরে আগুনে ছড়িয়ে পড়ে। মহুর্তের মধ্যেই এই আগুন পাশের ‘মুন্না থাই এ্যালমোনিয়াম’ ও ‘পায়ে পায়ে সুজ’ নামে দোকানসহ দু’পাশের কয়েকটি দোকানেও ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুনে নিয়ন্ত্রনে কাজ করে। পড়ে বিরল, কাহারোল ও চিরিরবন্দর ফায়ার সার্ভিসের আরো ৩টি ইউনিট তাদের সাথে যোগ দেয়। ফায়ার সার্ভিসের এই ৪টি ইউনিট প্রায় আধা ঘন্টা চেষ্টার পর আগুনে নিয়ন্ত্রনে আনে। ততক্ষণে কুরবান অটো, মুন্না থাই এ্যালমোনিয়াম ও  পায়ে পায়ে সুজসহ ৫টি দোকানের প্রায় ২৫ লক্ষ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

আগুনের কারণে কারাগারের বন্দিসহ রেইনবো সুপার মার্কেট ও আশপাাশের এলাকায় অবস্থিত দোকান-পাট এবং বাসাবাড়ীতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। আগুন দেখার জন্য শিশু, নারী-পুরুষসহ শতশত মানুষ ভিড় জামায়। উৎসুক মানুষের ভিড়ের কারণে আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের বেশ বেগ পেতে হয়েছে।

দিনাজপুর সহকারী পরিচালক আজিজুল ইসলাম চৌধুরী জানান, এখন পর্যন্ত আগুনের কারণ জানা যায়নি। তবে তদন্তের পর অগ্নিকান্ডের মুল কারণ জানা যাবে। তিনি জানান, কাছে পানি না থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে কিছুটা সময় লেগেছে।

দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, দোকানে মবিলসহ অন্য দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন নেভাতে কিছটা সময় লেগেছে। অন্যথায় আরো দ্রুত আগুনে নেভানো যেতো। শহিদুল ইসলাম জানান, আগুনে ৩টি দোকানের মালামাল পুরোপুরি ও দু’টি দোকানের মালামাল আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

কুরবান অটো’র স্বত্বাধিকারী মোটরসাইকেল মেকানিক্স মো. কুরবান আলীর চাচাত ভাই আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঘটনার পরপর কুরবান আলী অচেতন হয়ে পড়লে তাকে বাড়ীতে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি জানান, অগ্নিকান্ডের সময় কুরবানের একটিসহ দোকানে ৪টি মোটরসাইকেল ছিল। এছাড়া মোটরসাইকেলের খুচরা যন্ত্রাংশ, মবিলসহ প্রায় ১৫-১৬ লক্ষ টাকার মালামাল ছিল যা সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে।  

রেইনবো সুপার মার্কেটে অবস্থিত পায়ে পায়ে সুজ’র স্বত্বাধিকারী আলহাজ¦ মো. তোফাজ্জল হোসেন জানান, তাঁর দোকানের একটি এসিসহ অন্যান্য মালামাল মিলে ৫-৬ লক্ষ টাকার মালামাল পুড়ে গেছে।

এদিকে আগুন লাগার খবর পাওয়ার সাথে সাথে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং দাড়িয়ে থেকে আগুনে নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীবাহিনীকে সহযোগিতা করতে পথচারী ও পৌরবাসির সহযোতিগাতা চান। 

খবর পেয়ে দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফিরোজুল ইসলাম ফিরোজও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। 

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email