শুক্রবার ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর শহর ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের দক্ষিণ মুন্সিপাড়া মহল্লা কমিটির ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল

এম.আর মিজান ॥ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার নির্দেশ মোতাবেক তৃণমূল থেকে নেতা তৈরি করা হচ্ছে। তারই অংশ হিসেবে পাড়া-মহল্লায় আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হচ্ছে। সম্পুন্ন গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় এ নেতা নির্বাচনের কার্যক্রম চলছে। আওয়ামী লীগ দেশের একমাত্র রাজনৈতিক দল যারা গণতন্ত্র চর্চা করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোন ভয় নেই। তিনি তৃণমূল থেকে নেতা নির্বাচনের পর দলীয় সভাপতি নির্বাচনের জন্যও ছেড়ে দেবেন। গণতান্ত্রিকভাবে যিনি সভাপতি নির্বাচিত হবেন তিনি হবেন দলীয় প্রধান। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের মানুষ কিছু পায়। কেননা আওয়ামী লীগ আগুন সন্ত্রাস পেট্রোল বোমার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। উন্নয়ন ও গণতন্ত্র এটিই আওয়ামী লীগের প্রতিশ্রুতি। অন্যায় করে আওয়ামী লীগের কাছ থেকে কেউ রেহাই পায় না। দলীয় নেতাকর্মী হলেও তার ছাড় নেই। সে কারনেই দলটি এ দেশের মাটি ও মানুষের একমাত্র পছন্দের রাজনৈতিক সংগঠন। জনগণ তাই বার বার আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়ে ক্ষমতায় নিয়ে আসছে। আগামী দিনেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

১৫ নভেম্বর শুক্রবার দিনাজপুর শহর ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের অন্তর্গত দক্ষিণ মুন্সিপাড়া  মহল্লা কমিটির ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল-২০১৯ এ বক্তারা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। দক্ষিণ মুন্সিপাড়া মহল্লা কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন শহর আওয়ামী লীগের সদস্য বিশিষ্ট শিশু সংগঠক মনিরুজ্জামান জুয়েল, শহর আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও গবেষণা সম্পাদক মোঃ আলম, মহল্লা কমিটির উপদেষ্টা জয়নাল আবেদীন মোল্লা, অধ্যাপক লাইজু, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোবারক হোসেন গিটার, সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান নভেল, দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব মোঃ ওয়াহেদুল আলম আর্টিষ্ট, পৌর কাউন্সিলর জিয়াউর রহমান নওশাদ, ৩নং ওয়ার্ড মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শিউলী, মহিলা সম্পাদিকা আইরিন লতিফ, উত্তর মুন্সিপাড়া মহল্লা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চক্রবর্তী পাপ্পা, সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক রায়হান হোসেন প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম স্বাধীন। কাউন্সিলের দ্বিতীয় অধিবেশনে সকলের মতামতের ভিত্তিতে আগামী ৩ বছর মেয়াদের জন্য মারজান আহমেদ প্রবালকে সভাপতি ও মোঃ শাহিনকে সাধারন সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।