সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দিনাজপুর সরকারি কলেজের বিএনসিসি’র মহাস্থান রেজিমেন্টের আলোচনায় সভা

রফিক প্লাবন, দিনাজপুর ॥ সারা দেশের ন্যায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস পালন করেছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি)।
দিবসটি পালনে রোববার সকাল ১১ টায় দিনাজপুর সরকারি কলেজের নিজস্ব ভবনে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) মহাস্থান রেজিমেন্ট আলোচনা সভার আয়োজন করে। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুস সালাম আজাদ।
বিএনসিসি’র পি.ইউ.ও মো. আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ এর সভাপতিত্বে এবং পি.ইউ.ও মো. হামিদুর রহমান এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কলেজের শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. দাইমুল ইসলাম।
সভায় বক্তারা বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চ বাঙালি জাতির দীর্ঘ স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এক অনন্য দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) এক বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ডাক দেন। এ দিন লাখ লাখ মুক্তিকামী মানুষের উপস্থিতিতে এই মহান নেতা বজ্রকণ্ঠে ঘোষণা করেন, ‘রক্ত যখন দিয়েছি রক্ত আরো দেব, এ দেশের মানুষকে মুক্ত করে ছাড়বো ইনশাআল্লাহ। এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম, জয়বাংলা।’ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একাত্তরের ৭ মার্চ দেয়া ঐতিহাসিক ভাষণ পরবর্তীতে স্বাধীনতার সংগ্রামের বীজমন্ত্র হয়ে পড়ে। একইভাবে এ ভাষণ শুধুমাত্র রাজনৈতিক দলিলই নয়, জাতির সাংস্কৃতিক পরিচয় বিধানের একটি সম্ভাবনাও তৈরি করে। বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে ২০১৭ সালের ৩০ অক্টোবর বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘের শিক্ষা বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email