রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ ২৮শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নতুন আইনের উদ্দেশ্য জরিমানা নয়, শৃঙ্খলা ফেরানো : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘সংস্কার করে নতুন যে পরিবহন আইন করা হয়েছে, তার মুখ্য উদ্দেশ্য জরিমানা আদায় নয়। বরং সরকার চায় সবাই আইন মেনে চলুক। জরিমানা করার উদ্দেশ্য আমাদের নেই। উদ্দেশ্য সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। ’

রবিবার তেজগাঁওয়ে দৈনিক সমকাল কার্যালয়ে ‘সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্টদের করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সংস্কার করে নতুন যে পরিবহন আইন সংসদে পাস করা হয়েছে, তা নিয়ে এখন কিছু করার নেই। এটি নিয়ে সংসদে যেতে হবে। তবে আপাতত আইনটি সবাই মেনে চলবেন। সবার ভেতর সচেতনতা সৃষ্টি হবে এটাই কামনা করছি।’

নতুন আইনের বিষয়ে পরিবহন সেক্টর সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে সমালোচনা এলেও সর্বত্র আইন মানার প্রস্তুতি চলছে। গাড়ির ফিটনেস পরীক্ষায় কিংবা ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য বিআরটিএ-তে এখন প্রচণ্ড ভিড়।

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, “সবার মধ্যেই আইন মানার উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে। আমরা চাই- কোনো চালক বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাবেন না, সড়কে ফিটনেস-বিহীন গাড়ি থাকবে না, লাইসেন্স ছাড়া কোনো চালক গাড়ি চালাবেন না এবং সবাই ট্রাফিক আইন মেনে চলবেন।’

‘সরকার সবক্ষেত্রেই সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করছে। যতই প্রশ্ন উঠুক, আমরা চাই পরিবহন সেক্টরের সংশ্লিষ্টরা এ আইন মেনে চলবেন। আইনটি হয়ে গেছে। এ কারণে আপাতত করার কিছু নেই। এই আইনে রদবদল কিছু করতে হলে তা সংসদেই করতে হবে। সেজন্য সময়ই বলে দেবে।”

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email