সোমবার ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ৩রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নবাবগঞ্জে তালাক প্রাপ্তা স্বামীর ছুরিকাঘাতে বর্তমান স্বামী খুন

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকে এম এ সাজেদুল ইসলাম(সাগর):দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ঈদুল ফিতরের দিনে তালাক প্রাপ্তা স্বামীর ছুরিকাঘাতে নজরুল ইসলাম (৩২) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। জানা গেছে উপজেলার ১নং জয়পুর ইউনিয়নের হক সাহেবের বাজার (ঠসার মোড়)নামক স্থানে এই নির্মম হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।
১নং জয়পুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো: সোলায়মান আলী জানান কাতল মারী গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র সাদেকুল ইসলাম (৩৫) এর সাথে একই উপজেলার রহিমাপুর গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে হোসনেয়ারার সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে স্বামী সাদেকুলের নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে উঠে হোসনেয়ারা জীবন ।
অশ্রুসজল চোখে হোসনেয়ারা জানান উভয়ের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে ৮ মাস আগে। এর পর পাশ্ববর্তী পারবর্তীপুর উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর পিরোজপুর গ্রামের কমর আলীর পুত্র নজরুল ইসলাম (৩৩) এর সাথে গত ৬ মাস আগে দ্বিতীয় বিয়ে হয়। এর পর স্বামী নজরুল কে সঙ্গে নিয়ে ঢাকায় হোসনেয়ারা গৃহপরিচারিকার কাজ করে এবং তার স্বামী নজরুল ইসলাম রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতে থাকে।
ঈদুল ফিতরের উৎসব পালন করার জন্য নজরুল তার স্ত্রীকে নিয়ে খালা শাশুড়ীর বাড়ী কাতল মারী গ্রামের নুরবানুর বাড়ীতে উঠে। সেখান থেকে ঈদের দিন দুপুর ১২টায় রহিমাপুর গ্রামে তার শশুর বাড়ীতে ঈদ আনন্দ করতে বের হয় এবং এক পর্যায়ে পার্শ্ববতী ডাঙ্গী গ্রামে নজরুলের বোনের বাড়ীতে বেড়াতে গিয়ে পথি মধ্যে হক সাহেবের বাজারে পৌঁছলে হোসনেয়ার সাবেক তালাক প্রাপ্তা স্বামী সাদেকুল ইসলাম এর সাথে দেখা হয়। এক পর্যায়ে নজরুল কে দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে সাদেকুল।
একটি দোকানের পাশে স্ত্রী হোসনেয়ারা সহ দাড়িয়ে থাকা অবস্থায় সদেকুলের হাতে থাকা ছুরি দিয়ে নজরুলের বুকে আঘাত করে। এক পর্যায়ে মাটিতে লুটে পড়ে নজরুল । পরে জখমি অবস্থায় এলাকাবসাী ভ্যান যোগে চিকিৎসার জন্য পার্শ্ববতী ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নেওয়ার সময় পথি মধ্যে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে নজরুল ।
এ বিষয়ে তার স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম নবাবগঞ্জ থানায় সাদেকুলকে ১নং অভিযুক্ত করে হত্যা মামলা দায়ের করে। পরে অভিযুক্ত নজরুলকে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশের নিকট সোর্পদ করে।
নবাবগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার জানান হত্যা মামলার পর লাশ ময়না তদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ দিনাজপুরের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও আবতাবগঞ্জ পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান জানান, তদন্ত শেষে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করা হবে।
এ ঘটনায় নজরুলের স্ত্রী হোসনেয়ারা বেগম জানান, আমার স্বামী হত্যার আসামী সাদেকুলের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।