শুক্রবার ২৪ জানুয়ারী ২০২০ ১১ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নীলফামারী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল, সম্পাদক মমতাজুল

নীলফামারী ৫ ডিসেম্বর॥ নীলফামারী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন দেওয়ান কামাল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন অ্যাডভোকেট মমতাজুল হক।

সেইসঙ্গে ১০১ সদস্যের মধ্যে ২৬ জনের নাম ঘোষণা করা হয়। আগামী তিন মাসের মধ্যে ১০১ সদস্যের পুর্ণাঙ্গ জেলা কমিটি গঠন করে অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রে পাঠাতে নব নির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে নির্দেশ দেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

বৃহম্পতিবার(৫ ডিসেম্বর) নীলফামারী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল এর দ্বিতীয় অধিবেশনে কমিটি ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, নীলফামারী ২ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর সহ কাউন্সিলর ও ডেলিগেটরা।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে উপস্থিত কাউন্সিলরদের কণ্ঠ ভোট ও হাত তুলে সম্মতিতে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে পুনরায় দেওয়ান কামাল আহমেদকে সভাপতি ও অ্যাডভোকেট মমতাজুল হককে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

ঘোষিত ৬জন সহ-সভাপতিরা হলেন, খোকারাম রায়, হাফিজুর রশিদ মঞ্জু, এ্যাডঃ অক্ষয় কুমার রায়, ইঞ্জিনিয়ার সেকেন্দার আলী ও এসরারুল হক। যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ৩জন হলেন, আমজাদ হোসেন, এ্যাডঃ রমেন্দ্র বর্ধন বাপী ও মোকছেদুল মোমিন। সাংগঠনিক সম্পাদক দুইজন হলেন, আবুল কালাম আজাদ ও এ্যাডঃ আল মাসুদ আলাল। শিক্ষা সম্পাদক হলেন অধ্যাপক মশিউর রহমান, যুব ক্রীড়া সম্পাদক মেহেদী হাসান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ববিতা রানী সরকার। সদস্য হিসেবে ১০জনের ঘোষনা করা হয়।

এরা হলেন, আসাদুজ্জামান নূর এমপি, আফতাব উদ্দিন সরকার এমপি, রাবেয়া আলিম এমপি, গোলাম মোস্তফা সাবেক এমপি, এ্যাডঃ আলিম উদ্দিন বসুনিয়া, হাসিনা আহমেদ, ডাঃ মমতাজুল ইসলাম মিন্টু, ডাঃ মজিবুল হাসান শাহিন, রুহুল আমিন ও মোশারফ হোসেন।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ১৫ জুলাই সর্ব শেষ নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলণে দেওয়ান কামাল আহমেদ সভাপতি এবং মমতাজুল হক সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

২০১২ সালের ১ জানুয়ারী সেই কমিটি কেন্দ্রের অনুমোদন পায়। দীর্ঘ ১৩ বছর পর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো।