শুক্রবার ১৯ অক্টোবর ২০১৮ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

নেপালে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৫০

নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ৫০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে বিবিসি অনলাইন। প্রাথমিকভাবে বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ জানা যায়নি।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, বিমানটিতে ৬৭ জন যাত্রী ছিল। ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে দুপুর সাড়ে ১২টায় কাঠমাণ্ডুর উদ্দেশ্যে উড়ে যাওয়া বিমানটিতে যাত্রী ছিলেন ৬৭ জন।

তবে নেপালের পুলিশের মুখপাত্র মনোজ নুপেন প্রাথমিকভাবে ৪০ জনের প্রাণহানির তথ্য জানিয়েছেন। আহত বেশ কয়েকজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিধ্বস্ত বিমানের বাংলাদেশের যাত্রীদের তালিকা-

মিসেস রিজানা আব্দুল্লাহ
মি . ফয়সাল আহমেদ
মিস শাহরিন আহমেদ
মি . এয়াকুব আলী
মি . আলিফুজ্জামান
মিসেস আলমুন নাহার এনি
মিস বিলকিস আরা
বেগম নুরুন নাহার বিলকিস বানু
মিসেস মোসাম্মত অন্তরা বেগম
মি. শাহীন ব্যাপারী
মিস নাজিয়া আফরিন চৌধুরি
মি. রেজাওয়ানুল হক
মো. রকিবুল হাসান
মি. মেহেদী হাসান
মিসেস এমরানা কবির হাসী
মো : কবির হোসেন
মিস সানজিদা হক
মো : হাসান ইমাম
মো : নজরুল ইসলাম
মিস আখি মনি
মি. মিনহাজ বিন নাসির
তামারা প্রিয়ন্ময়ী  (শিশু)
মি : মো: মতিউর রহমান
মি: এসএম মাহমুদুর রহমান
মিসেস তানিরা তানভিন শশী রিয়া
মি : পিয়াস রায়
মি : শেখ রাশেদ রুবায়েত
মিস উম্মে সালমা
মিসেস সায়েদা কামরুনাহার স্বর্ণা
অনিরুদ্ধ জামান  (শিশু)
মি : মো: নুরু জামান
মো : রফিক জামান

ত্রিভূবন বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুর জানান, অবতরণের সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। এরপর বিমানবন্দরের কাছেই একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয় এটি। ত্রিভূবন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ও নেপাল সেনাবাহিনী উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।