সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পরিবাগে শেলটেক ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

রাজধানীর ব্র্যাক সেন্টারে বুধবার বিকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে চাইল্ড পার্লামেন্টের ১৮তম অধিবেশন। এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘কাউকে পেছনে না ফেলে, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে।’ এবারের চাইল্ড পার্লামেন্টে ১৬টি বিশেষ অঞ্চল থেকে ৩২ জন চাইল্ড পার্লামেন্টে অংশগ্রহণ করে।

এতে বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশন প্রকাশিত সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনাতে (২০১৬-২০২০) সুবিধাবঞ্চিত অঞ্চলের ওপর বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করা হয়েছে।

২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা আমাদের অর্জন করতে হলে, এ বিশেষ সুবিধাবঞ্চিত ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর তথা শিশুদের জীবনমানের উন্নয়ন করতে হবে বলে আলোচনায় উঠে আসে।

পার্লামেন্ট অধিবেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান।

অতিথি ছিলেন- প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ওরালা মারফি, ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর লরা ক্রিয়াডো, শিশু অধিকার ও সুরক্ষা বিভাগীয় প্রধান তানিয়া নুসরাত জামান, সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশের ডিরেক্টর প্রোগ্রাম কোয়ালিটি ও ডেভেলপমেন্ট রিফাত বিন সাত্তার ও ডেপুটি ডিরেক্টর আশিক ইকবাল।

অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, শিশুরাই আমাদের ভবিষ্যৎ। তাদের উন্নয়নে যথাযথ কর্মসূচি পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে। অনুষ্ঠানে শিশুদের উত্থাপিত দাবিগুলো আগামী সংসদ অধিবেশনে তুলে ধরবেন ও ৮ম পঞ্চবার্ষিক কর্মপরিকল্পনায় অগ্রাধিকার দেয়া হবে বলেও তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।