বুধবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে শিক্ষার্থীদের আনন্দ মিছিল

সারাদেশে নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলন থেকে শিক্ষার্থীদের উত্থাপিত ৯ দফা দাবি মেনে নেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে আনন্দ মিছিল হয়েছে।

সোমবার রাজধানী ঢাকা এবং বিভাগীয় শহরসহ বিভিন্ন জেলায় জেলায় শিক্ষার্থীরা আনন্দ মিছিল করে। এর আগে রবিবার (৫ আগস্ট) প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে আনন্দ মিছিল করা হয়।

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা আজ রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে আনন্দ মিছিল বের করেন। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিদ্যানন্দিনী হিসেবে আখ্যা দিয়ে বলেন, একমাত্র বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় আছেন বলেই জনগণ তাদের প্রাণের দাবি জানাতে পারে। আর তিনি জনগণের নেত্রী বলেই সকল দাবি মেনে নিয়ে আজ সকলের হৃদয়ে ঠাই করে নিয়েছেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকতেই বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হয়েছে, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হয়েছে এবং হচ্ছে, পিলখানা হত্যার বিচার হয়েছে, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে- এমন আরও অসংখ্য ন্যায় বিচারের নজির আমরা দেখেছি। তারই ধারাবাহিকতায় শিক্ষার্থীদের দাবিও মেনে নিতে দেখলাম। মানবিক নজির বারবার গড়েছেন বলেই তিনি আজ বিশ্বে মাদার অফ হিউম্যানিটি উপাধি পেয়েছেন।

এদিকে, গাজীপুর, নরসিংদী, পাবনা, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, ঝিনাইদহ, কুষ্টিয়া, শরিয়তপুর, ফরিদপুর, নীলফামারী, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, ঠাকুরগাঁও, ভোলা, মৌলভীবাজার, নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ, জামালপুর, সুনামগঞ্জ, নোয়াখালী, ফেনী, লক্ষ্মীপুর, মাদারীপুর, রাজবাড়ী, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁসহ দেশের আরও বেশ কয়েকটি জেলা থেকে আনন্দ মিছিলের খবর পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, ২৯ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী দিয়া আক্তার মিম ও আব্দুল করিম জাবালে নূর পরিবহনের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হয়। এরপর থেকেই সারাদেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে।