শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেও ঘাতকরা তার আর্দশকে মুছে ফেলতে পারেনি

রফিকুল ইসলাম ফুলাল : দিনাজপুর জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমদ ভুঞা বলেছেন,স্বাধীনতা বিরোধী চক্র ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করলেও ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর আর্দশকে এদেশ থেকে মুছে ফেলতে পারেনি। তিনি বলেন,দেশী-বিদেশী চক্রান্তকারীরা এদেশের পথভ্রষ্ট কিছু সেনা সদস্যের সহায়তায় সেদিন নির্মমভাবে জাতিরজনক ও তার পরিবারের অন্যান্য সকল সদস্যকে হত্যা করে বাঙ্গালী জাতির কপালে কলঙ্কলেপন করেছিলো। জাতিরজনক ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ট নেতৃতের সরকার¡ দীর্ঘদিন পরে হলেও বঙ্গবন্ধু ও জাতিরজনক হত্যা এবং যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে দোষীদের অনেককেই শাস্তি প্রদানের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্ক মোচন করতে পেরেছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার অন্য যে আসামীরা পালিয়ে বেড়াচ্ছে তাদেরও দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখী করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ্র জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিচার বিভাগ দিনাজপুরের আয়োজনে ১৫ আগষ্ট বুধবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে জেলা ও দায়রা জজ জনাব আজিজ আহমদ ভুঞা উপরোক্ত কথাগুলো বলেছেন। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন,নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মো: জালাল উদ্দীন,স্পেশাল জজ মাহমুদুল করীম,চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: আয়েজ উদ্দীন,সিনিয়র সহকারী জজ কিশোর দত্ত,সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আরিফুল ইসলাম,পিপি আজিজুল ইসলাম জুগলু,সাবেক এমপি এ্যাড: আব্দুল লতিফ মিয়া,আইনজীবি সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুজিবুর রহমান,সাধারন সম্পাদক তহিদুল হক সরকার,সাবেক পিপি হামিদুল ইসলাম ও মীর মো: ইউসুফ আলী।

সভায় বক্তারা বলেন,জাতিরজনকের স্বপ্ন ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার পাশাপাশি ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় সম্মিলিকভাবে কাজ করার সময় এসেছে। স্বাধীনতা বিরোধী কুচক্রীমহল এখনো নানা অপকর্মে লিপ্ত থেকে এদেশের মানুষকে বিভ্্রান্ত করছে তাই আগামী নির্বাচনে যাতে বিজয়ী হতে না পারে সেজন্যে সকলস্তরে সর্তকতা অবলম্বন কওে এগিয়ে যেতে হবে।

সভা শেষে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তার পরিবারের শাহাদাতবরনকারী সকল সদসের আত্বার শান্তি কামনা করে মোনাজাত করা হয়।