শনিবার ১৮ অগাস্ট ২০১৮ ৩রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড নিয়ে ‘তখন পঁচাত্তর’

বঙ্গবন্ধু শেখ ‍মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ড নিয়ে রচিত শহিদ রাহমানের গল্প ‘মহামানবের দেশে’ অবলম্বনে এর আগে ‘ইতিহাসের কৃষ্ণপক্ষ’ এবং ‘কবি ও কবিতা’ নামের দুটি কাহিনিচিত্র নির্মিত হয়েছে।

এবার নির্মিত হলো এ গল্প নিয়ে তৃতীয় কাহিনিচিত্র ‘তখন পঁচাত্তর’। মিরন মহিউদ্দীনের চিত্রনাট্যে এটি নির্দেশনা দিয়েছেন আবু হায়াত মাহমুদ। সম্প্রতি নাটকটির দৃশ্যধারনের কাজ শেষ হয়েছে।

গল্পে দেখা যাবে- ২৭ বছর পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কেড়ে নেয়া ছাত্রত্ব ফিরিয়ে দেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তাছাড়া দেশের রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব নেয়ার পর এবারই প্রথম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আসবেন তিনি।

এ উপলক্ষে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জমকালো এক অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে ব্যস্ত পুরো ঢাবি ক্যাম্পাস। অনুষ্ঠানের ঠিক আগের দিন শামসুন্নাহার হলের গেটে ছোটকাগজে হাতে আঁকা পাকিস্তানি পতাকা সাঁটা হয়, এনএস বিল্ডিংয়ে পটকা ফোটে, জহুরুল হক হল রেট করার খবর আসে।

সব মিলিয়ে ছাত্রসমাজ বিভ্রান্ত। তারা কমলাপুর রেলস্টেশনে আশ্রয় নেয়। এরই মধ্যে গভীর রাতে বেতারে ভেসে আসে মেজর ডালিমের কণ্ঠস্বর- শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছে।

ছাত্রসমাজ মিছিলে মিছিলে রাজপথ উত্তাল করে তোলে। সাপ্তাহিক ‘মুক্তির বাণী’ স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধু হত্যার খবরটি প্রকাশ করে। গ্রেপ্তার করা হয় সেই পত্রিকার সম্পাদক আবেদুর রহমান, ছাত্রনেতা মিজান, সাংবাদিক কবির। এই নৃশংস হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের জন্য পালিয়ে যান ছাত্রনেতা সেলিম।

তিয়াসা মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত কাহিনিচিত্রটি প্রযোজনা করেছেন মোহাম্মদ মোর্শেদ আলম। এতে অভিনয় করেছেন রাইসুল ইসলাম আসাদ, রুনা খান, শ্যামল মাওলা, ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, রাশেদ মামুন অপু, রামিজ রাজু, এসএম মহসীন, হিন্দোল রায়সহ অনেকে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনে ‘তখন পঁচাত্তর’ কাহিনিচিত্রের প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। এটি অচিরেই একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার করা হবে।