বুধবার ১৪ নভেম্বর ২০১৮ ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ ক্রীড়াঙ্গণের পাশাপাশি উন্নয়ন ও অগ্রগতির সকল সুচকে এগিয়ে-হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

রফিক প্লাবন, দিনাজপুর ॥- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্রীড়াঙ্গণের পাশাপাশি উন্নয়ন ও অগ্রগতির সকল সুচকে এগিয়ে রয়েছে এমন মন্তব্য করে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, দিনাজপুরের ক্রীড়াঙ্গন ও দিনাজপুরের খেলোয়াড়রা সারা বাংলাদেশের কাছে একটি বিষ্ময়কর ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে। কারণ কয়েক বছরের ব্যবধানে দিনাজপুরের ক্রীড়াঙ্গণ বাংলাদেশের কাছে ঈর্ষনীয় পর্যায়ে চলে গেছে। এবার জাতীয় অলিম্পিকে নড়াইল জেলার সাথে বাংলাদেশ যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হওয়া গৌরব অর্জন করেছে। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত অহংকার ও গর্বের বিষয়।

১৬ আগস্ট বৃহস্পতিবার দিনাজপুর জিমন্যাসিয়ামে জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় মাস ব্যাপী তৃণমুল পর্যায়ে অনুর্দ্ধ-১৪ বালিকা কাবাডি ও বাস্কেটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি দিনাজপুর বাস্কেটবল গ্রাউন্ডস এর সংস্কার কাজের ফলক উম্মোচন করেন। পরে ৩০ জন কাবাডি ও ৩০ জন বাস্কেটবল প্রশিক্ষণার্থী বালিকাকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। পরে প্রশিক্ষনার্থীদের সনদ বিতরণ করেন প্রধান অতিথি হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

একই অনুষ্ঠানে ঢাকা বিকেএসতে অনুষ্ঠিত বিকেএসপি কাপ হকি প্রতিযোগিতায় দিনাজপুর জেলা দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় সেই খেলোয়াড় ও কর্মকাদেরও ফুল দিয়ে সংবর্ধিত করা হয়। এসময় উপস্থিত খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাবৃন্দ বিকেএসপি কাপ ট্রফিটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কাছে হস্তান্তর করেন।

জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ড. আবু নঈম মুহাম্মদ আবদুছ ছবুর এর সভাপতিত্বে মাস ব্যাপী তৃণমুল পর্যায়ে অনুর্দ্ধ-১৪ বালিকা কাবাডি ও বাস্কেটবল প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ আবু সায়েম, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি মো. সুজা-উর-রব চৌধুরী ও দৈনিক তিস্তা’র সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান লুলু। শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুব্রত মজুমদার ডলার।

এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে দিনাজপুরের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সকল কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়গণ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উদীচীর হারুন উর রশীদ।

হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি আরো বলেন, শুধু তাই নয় অতি সম্প্রতি আমাদের দিনাজপুর বড় ময়দান থেকে বেড়ে উঠা আমাদের অহংকার লিটন দাস আমেরিকায় টি টুয়েন্টি খেলায় ম্যাচ অব দ্যা টুর্নামেন্ট হওয়ার গৌরব অর্জন করে আমাদের দিনাজপুরবাসীকে গর্বিত-সম্মানিত করেছে এবং বাংলাদেশের মুখকে উজ্জ্বল করেছে। উত্তরবঙ্গের সবচেয়ে মঙ্গা পিড়িত ও অবহেলিত জেলা ছিল দিনাজপুর। সেই অবহেলিত জেলা মঙ্গা ঘুচিয়ে খাদ্যে সয়ং সম্পূর্ণ হয়ে সমস্ত অবহেলার প্রাচীর ভেঙ্গে আমরা এখন সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। আমরা আমাদের মেধা, ক্রীড়া নৈপুন্য, কমিটমেন্ট, সাহসিকতা দেখিয়ে অপ্রতিরোধ্য গতিতে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গণে এগিয়ে যাবো ইনশাআল্লাহ। দিনাজপুর জেলা সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়া যুব সমাজকে প্রতিনিয়তই মাদকের হাতছানী দিয়ে আসছিল। পড়াশোনার পাশাপাশি তরুন সমাজকে খেলার মাঠে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছি। দিনাজপুরের তরুন ছেলে-মেয়েরা সকল ব্যার্থতাকে কাটিয়ে ভবিষ্যতে আলোকিত খেলোয়াড় হয়ে দিনাজপুরের মান-মর্যাদা ও সম্মানকে বাংলাদেশে তুলে ধরবে।