রবিবার ২১ অক্টোবর ২০১৮ ৬ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বিএনপি ভাঙার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট: কাদের

‘বিভক্তি আর দল ভাঙার ষড়যন্ত্র’ ঠেকাতে বিএনপির গঠনতন্ত্র পরিবর্তনের পর তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমবার বিকালে ধানমন্ডি থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত দলের নতুন সদস্য সংগ্রহ অভিযানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এমন প্রশ্ন রাখেন।

তিনি বলেছেন, রাতের আঁধারে কলমের এক খোঁচায় গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করে কি প্রমাণ করতে চায় বিএনপি? এতে দলটির গণতান্ত্রিক চেতনাও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

আওয়ামী লীগের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করতে হলে ২৫০০ কাউন্সিলের সম্মতির প্রয়োজন হয়। এছাড়া তা সম্ভব নয়। কিন্তু বিএনপি রাতের আঁধারে কলমের এক খোঁচায় গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করে ফেললো! এই তাদের গণতন্ত্র। যে দলে নিজেদের মধ্যেই গণতন্ত্রের চর্চা নেই; সেই দল কিভাবে দেশের গণতন্ত্রের কথা বলে।

বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারায় দলের সদস্য হওয়ার ক্ষেত্রে অযোগ্যতার বিষয়ে বলা ছিল, কেউ দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হলে তিনি দলের সদস্য থাকতে পারবেন না।

ওই ধারার (ক)-তে আছে, ১৯৭২ সালের রাষ্ট্রপতি আদেশ নং ৯-এর বলে দণ্ডিত ব্যক্তি, (খ) দেউলিয়া, (গ) উন্মাদ বলে প্রমাণিত ব্যক্তি, (ঘ) সমাজে দুর্নীতিপরায়ণ বা কুখ্যাত বলে পরিচিত ব্যক্তি দলের সদস্য হতে পারবে না।

ওবায়দুল কাদের বলেন: বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা বাতিল করার ফলে এখন কি দাঁড়ালো?- কোনো মামলায় দণ্ডিত ব্যক্তি, উন্মাদ, দেউলিয়া, দুর্নীতিবাজরাও বিএনপির করতে পারবেন!

তিনি অভিযোগ করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলায় সাজা হতে পারে এ আশঙ্কায় তারা দলের গঠনতন্ত্রে পরিবর্তন এনেছে।

বিএনপির অভিযোগ করে আসছে সরকার বিএনপি ভাঙার চেষ্টা করছে। সম্প্রতি বিএনপির মহাসচিব বিভিন্ন জায়গায় এ সংক্রান্ত বক্তব্য দিয়েছেন।

এর জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন: বিএনপি যে নেতিবাচক রাজনীতি শুরু করেছে; তাতে করে তাদের দল ভাঙার জন্য আওয়ামী লীগ কিংবা সরকারের প্রয়োজন নেই। বিএনপি ভাঙার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট।

সরকার বিরোধী আন্দোলনে ব্যর্থ বিএনপি এখন আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, সরকারবিরোধী আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। তারা বলছে, সরকার আদালতকে খালেদা জিয়ার সাজার ব্যাপারে চাপ দিচ্ছে!

‘আমি বলতে চাই আদালত যখন ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় দিলো তখন ফখরুল সাহেবদের কাছে আদালত স্বাধীন ছিল। এখন যখন আদালত তাদের নেত্রীর দুর্নীতির বিরুদ্ধে মামলার বিচার করছে তখন সরকার আদালতকে চাপ দিচ্ছে!’

সরকার এবং বিএনপি খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য দিচ্ছে- সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের এমন মন্তব্যের জবাবে কাদের বলেন, ‘খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা আওয়ামী লীগ সরকার করে নাই। তত্বাবধায়ক সরকারের আমলে দুদক এ মামলা করেছে। তারা সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করবে, আর আমরা যখন জবাব দিতে যাচ্ছি সেটা পাল্টাপাল্টি হয়ে যাচ্ছে!’

নতুন সদস্য সংগ্রহের ধীরগতিতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন: প্রয়োজনে নতুন সদস্য সংগ্রহে ঘরে ঘরে যান। কিন্তু, মনে রাখবেন জোর করে কাউকে সদস্য করা যাবে না।

এ সময় ২ কোটি ৪০ লাখ নতুন ভোটারকে সদস্য করার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন তিনি।