বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিকালে মুখোমুখি বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড

আজ বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে টাইগাররা। এ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্টের সবচেয়ে বড় ফেভারিট স্বাগতিক ইংল্যান্ড। কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন্সে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্টের ১২তম ম্যাচটি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে আরও একটি জয় বাংলাদেশকে অনুপ্রাণিত করতে পারে। ৪ বছর আগে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে অ্যাডিলেডে ইংলিশদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ। রুবেল হোসেনের বোলিং তোপে ১৫ রানে জিতেছিল টাইগাররা। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওই জয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার কৃতিত্ব দেখিয়েছিল বাংলাদেশ।

অ্যাডিলেডের প্রেরণার সঙ্গে সোফিয়া গার্ডেনসের দুই জয়ের সুখস্মৃতি নিয়ে বাংলাদেশ নিশ্চিতভাবেই আত্মবিশ্বাসী। কার্ডিফে বাংলাদেশের সঙ্গে কাকতালীয়ভাবে দুটি বিষয় মিলে গেছে। একটি হলো জুন মাস, অন্যটি ৫ উইকেটের জয়। এখানে জয় পাওয়া দুটো ম্যাচই ছিল জুনে। আর ২০০৫ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয়ের পর ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও ৫ উইকেটে জিতেছিল বাংলাদেশ। এবারের জুনেও ক্রিকেটদেবতা এমন কিছু ঘটাবেন না, কে বলতে পারে? ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলে কি কোনো পরিবর্তন আসছে- সোফিয়া গার্ডেনসের ম্যাচের আগে এই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে টাইগার সমর্থকদের মনে। কার্ডিফের এই মাঠ লম্বায় কিছুটা ছোট। যে কারণে বাড়তি একজন স্পিনার খেলিয়ে ঝুঁকি নিতে চাইছে না টিম ম্যানেজমেন্ট। যদিও দুই বছর আগের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে অফ স্পিনার মোসাদ্দেক হোসেনের ভেলকিতে জিতেছিল বাংলাদেশ। এবারও দলে মোসাদ্দেক আছেন। তাই বাড়তি একজন পেসার খেলালে মেহেদী হাসান মিরাজকে বসানো হতে পারে।