শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিদ্যু‌তের দাম বৃ‌দ্ধি সাম‌য়িক সম‌য়ের জন্য : কা‌দের

বিদ্যু‌তের দাম বৃ‌দ্ধি সাম‌য়িক সম‌য়ের জন্য ব‌লে জা‌নি‌য়ে‌ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর হাতিরপুলে শহীদ সেলিম দেলোয়ার দিবসে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবা‌বে ওবায়দুল কা‌দের ব‌লেন, ‘আমি বলতে চাই আজকে বিদ্যুৎ, পানির জন্য আপনাদের সেবা পেতে কোনো অসুবিধা হচ্ছে না।

পানি আর বিদ্যুতের সরবরাহ যা‌তে অব্যাহত থাকে এই মুজিববর্ষে ‘ বর্তমানে ৯৬ ভাগ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধা পাচ্ছে জা‌নি‌য়ে তি‌নি ব‌লেন, ‘সরকার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেবে ইনশাআল্লাহ।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, উৎপাদন খরচ মিলিয়ে বিদ্যুৎ ব্যবস্থাকে আরো আধু‌নিক ও আপনাদের কাছে সহজলভ্য করার জন্য বিদ্যুতের দাম কিছুটা বাড়া‌নো হ‌চ্ছে। আপনা‌দের কা‌ছে শতভাগ বিদ্যুৎ পৌঁছানোর জন্য একটু কষ্ট হবে। তারপরও বিদ্যুতের উপর সরকারকে সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দিতে হবে। এই ভর্তুকি কমানোর জন্য, বিদ্যুত উৎপাদন করার জন্য সাময়িকভাবে দাম বাড়া‌নো হ‌চ্ছে। আমি আশা করি ঢাকাবাসী জনগণ এটা মেনে নিবেন।

তিনি বলেন, গ্যাস সরবরাহ ঘাটতি হবে না। গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহ ২৪ ঘন্টা চলবে।

অতীতে সময়ে-অসময়ে বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছে মন্তব্য ক‌রে কা‌দের ব‌লেন, বিএনপি সরকারের আমলে আপনারা ‌দে‌খে‌ছেন ঘণ্টায় ঘণ্টায় লোডশেডিং হয়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা বিদ্যুৎ ছিল না। কাজেই আজকে এই বিদ্যুৎ সহজলভ্য করার জন্য সাময়িকভাবে আপনারা কষ্ট কর‌বেন।

অপর এক প্রশ্নের জবা‌বে তি‌নি ব‌লেন, আজকে ভারতে দিল্লি শহরে তাদের একটা অভ্যন্তরীণ সংকট চলছে। পাশের ঘরে আগুন লাগলে সেটার আঁচ লা‌গে। আমরা অবশ্যই জানি প্রতিবেশী ভারত আমাদের বিশ্বস্থ বন্ধু। ভারতের সাথে আমাদের চমৎকার সম্পর্ক বিরাজ করছে। আমরা ভারতকে বলব, আজকে দিল্লিতে ‌যে সহিংসতা চল‌ছে তারা তাদের নিজেদের সমস্যা নিজেরা অতি দ্রুত সমাধান করে নিবেন।

একই সময় তি‌নি ব‌লেন, বাংলাদেশের মুজিবব‌র্ষের মতো ঐতিহাসিক উৎসবে ভার‌তকে আমন্ত্রণ যদি না করা হয় সেটা হ‌বে দুঃখজনক। কারণ তারা স্বাধীনতা সংগ্রা‌মের সময় আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের সেদিন সাহায্য ও সহানুভূতি তারা ক‌রে‌ছিল। শরণার্থীদের আশ্রয় দি‌য়ে‌ছিল।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী আজকে সততার সাথে দেশ চালাচ্ছেন। শেখ হাসিনা আছেন বলে অনেক শান্তি আছে। সন্ত্রাসীরা মানুষকে যা‌তে দুর্ভোগে ফেলতে না পারে কষ্ট দিতে না পারে সেজন্য শেখ হাসিনা আজকে অভিযান শুরু করেছেন। আমি আপনাদেরকে অনুরোধ করব আপনারা এই শুদ্ধি অভিযানে বঙ্গবন্ধু কন্যা‌কে সহযোগিতা করবেন। তিনি আজকে সারা দুনিয়াকে দেখিয়ে দি‌য়ে‌ছেন যে, তিনি নিজের দলের বিরুদ্ধে প্রথম শু‌দ্ধি অভিযান চালাচ্ছেন।

দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, মুক্তিযোদ্ধা মঞ্চের সভাপতি রুহুল আমিন মজুমদার, শহীদ সে‌লিম দে‌লোয়ার স্মৃতি পরিষদের সভাপতি ড. আব্দুল ওয়াদুদ প্রমুখ।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email