বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বিরলে কেঁচো সার উৎপাদনের ধুম

Kecho

দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরের বিরলে কেঁচো সার উৎপাদনের ধুম পড়েছে। আর এর অনেকটাই করছেন নারীরা। ঘরে ঘরে কেঁচো সার তৈরি করে তারা অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি সংসারে আনছেন দারুণ সচ্ছলতা।

জানা গেছে, সর্ব প্রথম দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর গ্রামের প্রথম পাঁচজন মহিলা কেঁচো সার তৈরিতে কৃষি বিভাগের কাছ থেকে পরামর্শ ও প্রশিক্ষণ নেন। এর মধ্যে বিলপাড়ার পুতুল চন্দ্র দেবশর্মার স্ত্রী লিপা রানী অন্যতম।

এ ব্যাপারে পুতুল চন্দ্র দেবশর্মা ও লিপা রানী জানান, প্রথমে মহিলা বিষয়ক অধিদফতর থেকে ঋণ নিয়ে তারা কেঁচো সার তৈরির কাজ শুরু করেন।  সাত মাস আগে ৬টি রিং, কেঁচোসহ যাবতীয় উপকরণের জন্য খরচ হয়েছে ১৫ হাজার টাকা। কিন্তু এরই মধ্যে তারা ৩০ হাজার টাকার কেঁচো সার পর্যায়ক্রমে বিক্রি করেছেন। প্রথম ৬টি রিং দিয়ে শুরু করলেও এখন ২২টি রিংয়ে কেঁচো সার তৈরির কাজ চলছে। খোঁজ নিয়ে আরও জানা গেছে, স্বাবলম্বী হতে বিরল উপজেলার দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর গ্রামের বিলপাড়ার ঘরে ঘরে নারীরা কেঁচো উৎপাদন করছেন। তবে তাদের প্রত্যাশা, সরকারিভাবে এ কাজে বিনা সুদে ঋণ পেলে আরও বড় আকারের খামার তৈরিসহ সারের উৎপাদন বৃদ্ধি করা সম্ভব।এ জন্য হতে পারে শত শত নারীর ভাগ্যোন্নয়ন।

বিরল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আশরাফুল আলম জানান, বিরলের নারীদের ভাগ্যোন্নয়ন ও কৃষি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর গ্রামসহ আশপাশের এলাকায় শতাধিক নারী-পুরুষ এ কাজে এগিয়ে এসেছেন।