সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিরলে বাল্য বিবাহ অনুষ্ঠান আয়োজনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতে ২ জনের কারাদন্ড

মায়ের পিত্রালয়ে (নানার বাড়ীতে) বাল্য বিবাহের আয়োজন করেও শেষ পর্যন্ত বিবাহ আর হলো না। ভ্রাম্যমান আদালত বিবাহ বাড়ীতে হাজির হয়ে বাল্য বিবাহের আয়োজন করি কনের নানা ও বরের খালুকে আটক করে দন্ড প্রদান করেছে। নাতনী ও ভাগিনার বাল্য বিবাহের আয়োজনের দায়ে পুলিশ ২ জনকেই আটক করে জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে।
জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে উপজেলার পৌরশহরের শংকরপুর (বালাপুকুর) মহল্লার মৃত শরিফ উদ্দীনের পুত্র মোসাদ্দেক হোসেন (১৯) এর সাথে রাণীপুকুর ইউপি’র মির্জাপুর গ্রামের ৮ম শ্রেণি পড়–য়া কন্যার ৫নং বিরল ইউপি’র পুরিয়া গ্রামের নানার বাড়ীতে বাল্য বিবাহ অনুষ্ঠানের আয়োজন এর সংবাদের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমান আদালত ঘটনাস্থলে হাজির হয়। বাল্য বিবাহের আয়োজন দেখে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক এ বি এম রওশন কবীর পুরিয়া গ্রামের মৃত অছিমদ্দীনের পুত্র কনের নানা নুর জামাল (৪৫) এর বাড়ীতে সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্সকে তাকে আটকের নির্দেশ দেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদে বাল্যবিবাহের অপর আয়োজনকারী শংকরপুর (বালাপুকুর) মহল্লার আহাম্মদ আলুর পুত্র বরের খালু জমিল উদ্দীন (৫৬) কেও আটক করে পুলিশ এবং তাৎক্ষণিক ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক তাঁদের দু’জনকে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন। শুক্রবার বিকালেই দু’জনকে জেলা কারাগারে পাঠিানো হয়েছে বলে থানার অফিসার ইনচার্জ এ টি এম গোলাম রসুল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।