বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ ৬ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে আদিবাসী কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ

মোঃ আব্দুর রাজ্জাক ॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে আদিবাসী কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ এবং বার্ষিক কৃষক র‌্যালী ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সফল কৃষকদের সফলতা শেয়ারকরার মাধ্যমে নিজদলের কৃষক সদস্য ও অন্য সাঁওতাল কমিউনিটির কৃষক সদস্যেদের আধুনিক ও লাভজনক চাষে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে গ্রাম বিকাশ কেন্দ্রের বাস্তবায়নে এবং সিনজেনটা ফাউন্ডেশন ফর স্যাসটেনেবল এগ্রিকালচার বাংলাদেশ (এসএফএসএবি)এর বাস্তবায়নে সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর টেকসই কৃষি প্রকল্পের আওয়াতায় গতকাল রবিবার বিকেলে বীরগঞ্জ পৌর শহরের কৃষির মাধ্যমে সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক পরিবর্তন প্রকল্পের বার্ষিক কৃষক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

র‌্যালীটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মাকড়াই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মাকড়াই আদিবাসী কৃষক নেতা রবিন বাস্কের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাকড়াই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবুল কালাম, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল মাজেদ, মোঃ রেজাউল করিম, পৌর কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবির, বীরগঞ্জ সাংবাদিক কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান মোঃ জুয়েল, উপকারভোগী সিংড়া আদিবাসী কৃষক নেতা রমেশ হাসদা, মাকড়াই আদিবাসী কৃষাণী মারগিরিতা হাসদা, গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র কৃষির মাধ্যমে সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক পরিবর্তন প্রকল্প সমন্বয়কারী মোঃ আব্দুল করিম, ফিল্ড অর্গানাইজার মোঃ আল মামুন শাহ, মুকুল দেবনাথ ও মারিয়া গরেটি হেমরম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেন, গ্রাম বিকাশ কেন্দ্র এবং সিনজেনটা ফাউন্ডেশন ফর স্যাসটেনেবল এগ্রিকালচার বাংলাদেশ প্রকল্প আদিবাসী কৃষকদের উণœয়নের ক্ষেত্রে যে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তা প্রশংসার দাবি রাখে। উন্নত জাতের বীজ উৎপাদন এবং অধিক ফলনশীল সবজি চাষের প্রশিক্ষণ আদিবাসী কৃষকদের আর্থ-সামাজিক ও জীবন মানের উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানে আদিবাসী কৃষকদের উৎসাহিত করার লক্ষ্যে অনুষ্ঠানে সফল কৃষক-কৃষাণীর সহ সকলের মাঝে কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়। এ সময় কয়েক শতাধিক আদিবাসী কৃষক-কৃষাণী উপস্থিত ছিলেন।