সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে প্রকাশ্য জুয়া খেলার সময় হাতেনাতে ১১ জনকে গ্রেফতার করেছেন পুলিশ

বীরগঞ্জ, দিনাজপুর থেকে বিকাশ ঘোষ : বীরগঞ্জে পৃথক পৃথক ভাবে ১১ জুয়ারীকে গ্রেফতার করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছেন বীরগঞ্জ থানা পুলিশ। গত ৭ জুলাই রোজ রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ১১ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। বীরগঞ্জ থানা সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার ৯নং সাতোর ইউনিয়নের ২৫ মাইল প্রাণনগর গ্রামের গোয়াল পাড়া ও ৬ নং নিজপাড়া ইউনিয়নের কল্যাণী হাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১১ জন জুয়ারী প্রকাশ্য জুয়া খেলার অপরাধে বীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাকিলা পারভিনের নেতৃত্বে এসআই আমজাদ হোসেন, এসআই নুরুল হক ও এস আই মন্ডল সহ একদল পুলিশ ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলার সামগ্রী, নগদ অর্থ, কয়েক সেট তাস, তাবু ও বিছানাপত্র জব্দ করে এবং ১১ জনকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃতরা হলেন সাতোর ইউনিয়নের প্রাণনগর গ্রামের মো : এফাস্যাস উদ্দিনের ছেলে মো: বাবুল হোসেন (৩৫), মো. ইদ্রিস আলীর ছেলে মো: রওশন আলী (৪১), জমশের আলীর ছেলে শাহাজান আলী ( ৩০), মো:জাফর মিস্ত্রীর ছেলে হাসম্মদ আলী (৩৬) মো. নুর ইসলামের ছেলে মহির উদ্দিন (৩৫), মো. ইউসুফ আলীর ছেলে মো: আনোয়ারুল হক (৩২) এবং ৬নং নিজপাড়া গ্রামের কল্যাণী এলাকার মো. আজিম উদ্দিনের ছেলে আজিজুল ইসলাম( ৩২), মৃত আজাহারুল আলীর ছেলে মো. মকবুল হোসেন (৫০), মৃত হাসেম আলীর ছেলে নুরু ইসলাম(৪০) ও জগদল ভোলাপুকুর এলাকার বিশ্বনাথ রায়ের ছেলে হৃদয় রায়( ৪২) সহ ১১ জন জুয়ারীকে গ্রেফতার করে। অন্যরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। প্রকাশ্য জুয়ার আসর বসিয়ে, জুয়া খেলার অপরাধ ও ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন তাঁরা। এব্যাপার বীরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সাকিলা পারভিন সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে তিনি জানান, প্রকাশ্য জুয়ার আসর বসিয়ে তাঁরা জুয়া খেলার অপরাধে বীরগঞ্জ থানা পুলিশ বাদী হয়ে জুয়ারীদের বিরুদ্ধে ১৯৬৪ সালের জুয়া আইনে ৪ ধারায় মামলা দায়ের করে বিচারের জন্য সোমবার সকালে দিনাজপুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।