সোমবার ৩ অগাস্ট ২০২০ ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বীরগঞ্জে ব্রজেন্দ্রনাথের পাশে মানবসেবী সোহেল আহম্মেদ

মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, বীরগঞ্জ, দিনাজপুর সংবাদদাতা ॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার পাল্টাপুর ইউনিয়নে জন্ম নেয়া শ্রী ব্রজেন্দ্রনাথ সরকার(৬৫) আজ প্রায় বহু বছর থেকেই পাগল।পাগলামি বয়সের অনেকটা সময়ই বিভিন্ন এলাকায় ঘুরেফিরে বৃদ্ধ ব্রজেন্দ্রনাথ পাগলা বিগত প্রায় ১৯-২০ বছর থেকে বীরগঞ্জ প্রেসক্লাবের বারান্দায় অতঃপর প্রেসক্লাবেরই একটি ঘরে বসবাস করে আসছে। বীরগঞ্জ প্রেসক্লাবে গেলে প্রায়শই এই পাগলটাকে একটি প্লাস্টিকের চেয়ারে বসেবসেই ঘুমাতে দেখা যায় আর ঘুমশেষে সে বের হয় আহারের সন্ধানে মানুষের বাড়িবাড়ি বা হাত পেতে টাকা যোগার করে কিংবা শহরের কোনো হোটেলের বাসীপঁচা খাবার খেয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। সম্প্রতি পৌরশহরস্থ “মা” হোটেল থেকে প্রায়শই রাতে স্পেশাল ভাত- তরকারির প্যাকেট নিয়ে যেতে দেখলে জিজ্ঞেস করলে “মা” হোটেলের মালিক মিঠু বিশ্বাস জানায়, বিগত প্রায় দুই বছর থেকে প্রতিরাতেই এই ব্রোজেন পাগল এসে রাতের খাবারের  স্পেশাল প্যাকেটটি নিয়ে যায়।  এর কারনে এখন আর পাগলাকে অন্য কোথাও খাবারের জন্য ভিক্ষা করতে হয়না। খাবার বিল কে পরিশোধ করে তা জানতে চাইলে হোটেল মালিক বলেন, বীরগঞ্জের ভাই ভাই সু-ষ্টোরের স্বত্বাধিকারী সোহেল আহাম্মেদ এতাবৎকাল নিয়মিতভাবে এই খাবারের মূল্য নগদে পরিশোধ করে আসছেন। মানবসেবী সোহেল আহম্মেদ এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, জীবন চলার পথে বিভিন্ন সময়ই তিনি যথাটুকু পেরেছেন নিজেকে মানবসেবায় নিয়োজিত রাখার চেষ্টা করেছেন। আল্লাহর রহমতে বর্তমানে সল্পমুনাফার হালাল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালিয়ে পরিবার-পরিজন পরিচালনার পাশাপাশি ছিন্নমূল ব্রোজেন পাগল সহ জাত-পাত  নির্বিশেষে অসহায় মানুষের  পাশে থাকার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন কেবলমাত্র। মহান সর্ব শক্তিমান আল্লাহ তা’আলার প্রতি কৃতজ্ঞতা স্বীকার করে  এই মানবসেবী আগামীতেও যথাসাধ্য মানবসেবা চালিয়ে যাওয়ার তৌফিক প্রার্থনা করে স্ব-স্ব স্থান থেকে সকল সচ্ছল মানুষকে অসহায়দের পাশে দাড়াবার ও সহযোগিতার হাত বারাবার আহ্বান জানান। উল্লেখ্য যে, মানবসেবী সোহেল আহম্মেদ এরকম আরোও অনেক পথের ছিন্নমুল মানুষের প্রতিনিয়ত খাদ্য ব্যবস্থাই যেন তার নিত্যদিনের কাজ। যা সমাজের একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email