শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বোদায় এবার পাট চাষীদের মুখে হাসি

মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি ॥ পঞ্চগড়ের বোদায় এবার পাট চাষীদের মুখে হাসি ফুটেছে। সোনালী আশ বলে খ্যাত পাট চাষীদের সুদিন ফিরতে শুরু করেছে। বর্তমানে উপজেলার হাট বাজারগুলোতে দুই হাজার টাকা হতে দুই হাজার একশ টাকা দরে পাট বিক্রি হচ্ছে। গত বুধবার হাট বারে বোদা নগরকুমারী হাটে পাট বিক্রি করতে আসা পাট চাষী দেলোয়ার হোসেন এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার পাট চাষ করে লাভবান হয়েছি। প্রত্যেক বছর তিনি পাট চাষ করতেন। কিন্তু এক হাজার হতে এক হাজার দুইশত টাকার উপর বাজারে পাট বিক্রি করতে পারতেন না। চলতি মৌসুমে তিনি এক বিঘা জমিতে পাট চাষ করেছেন। পাট উত্তোলন করে সেই মাটিতে আমন ধানের চারা লাগিয়েছেন। এবার বৈশাখ ও জৈষ্ট মাস এক টানা বৃষ্টি হওয়ায় পাট এর ফলন কম হয়েছে। তার পরও তিনি ৫ মণ পাট উত্তোলন করতে পেরেছেন। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১২০০ হেক্টর। উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের সব জায়গায় কম বেশি পাট চাষ করা হয়েছে। চলতি মৌসুমের এবার বৃষ্টি পাত বেশি হওয়ায় পাটের বাম্পার ফলন একটু ব্যাহত হয়েছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় যারা পাট চাষ করেছেন কম বেশি সবার পাটের ফলন হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার আল মামুন অর রশিদ জানান, পাট এর বাজার মুল কম হওয়ায় এবং সঠিক সময়ে পাট উত্তোলন করতে না পারায় অনেক পাট চাষী পাট চাষের পরিবর্তে বাদাম ভুট্রা সহ অন্যান্য লাভজনক চাষের দিকে ঝুকে পড়েছেন। চলতি মৌসুমে পাটের বাজার মুল্য ভাল হওয়ায় পাট চাষীদের মধ্যে আগ্রহ বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলা কৃষি বিভাগ সব সময় উপজেলার কৃষকদের যাবতীয় পরার্মশ ও সহযোগীতা প্রদান করছেন।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email